Menu

আমি শাসক নই, সেবক হিসেবে আমৃত কাজ করে যেতে চাই -এড. লীটন

সোনাতলা সংবাদ ডটকম (স্টাফ রিপোর্টার): বগুড়ার সোনাতলা উপজেলা চেয়ারম্যান এড. মিনহাদুজ্জামান লীটন বলেছেন, আমি আমৃত সোনাতলা বাসীর সুখে দুখে পাশে থাকতে চাই। এবারের বন্যায় তিনি ব্যতিক্রম ধর্মী উদ্যোগ গ্রহণ করে ওই উপজেলাবাসীর মনিকোঠায় স্থান দখল করে নিয়েছেন। তিনি বন্যার্তদের মাঝে ত্রান সামগ্রী, রাতে নৌকায় করে ঘরে ঘরে গিয়ে খিচুরী বিতরণ ও শিশুদের মাঝে গরুর দুধ ও পাউরুটি বিতরণ করে নতুন করে ইতিহাস সৃষ্টি করেছে।
তিনি গতকাল সোমবার বগুড়ার সোনাতলা উপজেলার চরপাড়া, জোড়গাছা সহ বিভিন্ন এলাকায় ত্রান বিতরণ কলে উপরোক্ত কথা বলেন। এ সময় বানভাসী মানুষগুলো আবেগ আপ্লুত হয়ে কেঁদে ফেলেন। তারা বলেন, স্বাধীনতার পরবর্তী বহু উপজেলা চেয়ারম্যান আমাদের ভোটে নির্বাচিত হয়ে ৫ বছর কাল আবার কেউ ১০ বছর অতিক্রম করলেও এ ধরনের উদ্যোগ কোন চেয়ারম্যান গ্রহণ করেনি। এতে বন্যাকবলিত মানুষগুলো চেয়ারম্যানের কর্মকান্ডে বেজায় খুশি। ওই উপজেলার বন্যার্ত মানুষেরা এবার ত্রান সামগ্রীর অভাব বুঝতে পারেনি। কারণ স্থানীয় সংসদ সদস্য আব্দুল মান্নানের সার্বক্ষনিক তদারকিতে ত্রান সামগ্রী বিতরণ অব্যাহত ছিল।
এ সময় উপজেলা চেয়ারম্যান এলাকাবাসীদের উদ্দেশ্য বলেন, আমি কোন শাসক নই, আমি আপনাদের সেবক। আমৃত আপনাদের পাশে থেকে সেবা করে যেতে চাই। এজন্য আপনারা আমার জন্য এবং সংসদ সদস্য আব্দুল মান্নানের জন্য দোয়া করবেন।
এ সময় তার সাথে ছিলেন, ড. এনামুল হক কলেজের ভাইস প্রিন্সিপাল তরিকুল আলম স্বপন, জোড়াগাছা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি আব্দুল মোমিন মাষ্টার, সাধারণ সম্পাদক প্রভাষক রফিকুল ইসলাম মতিন, এমদাদুল হক প্রমুখ

No comments

Leave a Reply

fifteen − 10 =

সর্বশেষ সংবাদ