Menu

কাহালুতে আওয়ামীলীগের দুগ্রুপের সংঘর্ষঃ ইউপি চেয়ারম্যানসহ আহত- ৩

কাহালু (বগুড়া) প্রতিনিধিঃ গতকাল বুধবার দুপুরে বঙ্গবন্ধুর জন্মবাষিকীর দিনে বগুড়ার কাহালুকে আওয়ামীলীগের দুগ্রæপের হট্টগোলে নারহট্ট ইউপি চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি রুহুল আমিন তালুকদার বেলালসহ তিনজন আহত হয়েছেন। পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রন করলেও এখনো এলাকায় থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে। রুহুল আমিন তালুকদার বেলাল ও উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মান্নান জানান, বিএনপি থেকে আওয়ামীলীগে অনুপ্রবেশকারী বিবিরপুকুরের আঃ রহিম ট্রাক নিয়ে মিছিলসহ তাদের কার্যালয়ে সামনে আসে। ওই মিছিল থেকে ইউপি চেয়ারম্যান রুহুল আমীন তালুকদারের বিরুদ্ধে ¯েøাগান দেয়। এসময় স্থানীয় আওয়ামীলীগের নেতৃবৃন্দ রুহুল আমীন তালুকদারের বিরুদ্ধে ¯েøাগান দিতে নিষেধ করলে উভয় পক্ষের মধ্যে কথাকাটির এক পর্যায়ে মারপিটের ঘটনা ঘটে। প্রত্যেক্ষদর্শীরা জানান, মারপিটে ইউপি চেয়ারম্যান রুহুল আমিন তালুকদার বেলাল (৫০) ও আঃ রহিমের সমর্থক আঃ আজিজ (৩৯) গুরুত্বরভাবে আহত হন। আঃ রহিমের মিছিলে থাকা উপজেলা স্বেচ্ছা সেবকলীগের সাবেক সভাপতি সাইফুল ইসলাম জানান, বঙ্গবন্ধুর জন্মবার্ষিকীর আলোচনা সভায় যাওয়ার পথে উপাজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মান্নানের অফিসের সামনে আমাদের ট্রাক থামিয়ে গায়ে পড়ে কয়েকজন মিলে তর্ক-বিতর্ক করে আমাকে ও আমাদের লোকজনকে মারপিট করে। পৌর স্বেচ্ছা সেবকলীগের সভাপতি রাগিবুল হাসান রাগিব জানান, উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আলহাজ্ব মোঃ হেলাল করিরাজের মিছিল থেকে কাহালু হাসপাতালের সামনে আমার উপর হামলা করা হলে পুলিশ এসে আমাকে রক্ষা করেছেন। এব্যাপারে উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আলহাজ্ব মোঃ হেলাল উদ্দিন কবিরাজের সাথে মোবাইল ফোনে কথা বলা হলে তিনি বলেন এব্যাপারে তোমার কাছে কোন কথা বলবোনা। এদিকে ঘটনার জের ধরে কাহালু উচ্চ বিদ্যালয়ের সামনেও হট্টগোল হয়েছে। সেখানকার কয়েকজন জানান, হট্টগোলের জেরে কাহালু মসজিদ পাড়ার আব্দুল করিমের বাড়িতে হামলার ঘটনাও ঘটে। অপরদিকে অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে হাইস্কুল মাঠে খাওয়া-দাওয়ার পর্ব শেষে উপজেলা সভাপতির পক্ষে আসা লোকজনকে পুলিশ পহরায় পাঠিয়ে দেওয়া হয়। কাহালু থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ আমবার হোসেন জানান, যখন উভয় পক্ষের মধ্যে উত্তেজনা শুরু হয়, সঙ্গে সঙ্গে পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রন করে। তিনি আরো জনান, আইন-শৃঙ্খলার অবনতি ঘটনার চেষ্টা কেউ করলে তাকে ছার দেওয়া হবেনা। এঘটনায় কেউ অভিযোগ করলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে। উল্লেখ্য যে, টান টান উত্তেজনার মধ্যে উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আলহাজ্ব মোঃ হেলাল উদ্দিন কবিরাজের গ্রæপ কাহালু প্রেসক্লাবের সামনে ও উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আঃ মান্নানের গ্রæপ কাহালু পৌরমঞ্চে বঙ্গবন্ধুর জন্মবার্ষিকীর আলোচনা সভা করেন।

No comments

Leave a Reply

ten − four =

সর্বশেষ সংবাদ