Menu

কাহালুতে আওয়ামীলীগের দুগ্রুপের সংঘর্ষের জেরে শিলকঁওড় গ্রামে সংঘর্ষঃ আহত-৪

কাহালু (বগুড়া) প্রতিনিধিঃ গতকাল বুধবার বঙ্গবন্ধুর জন্মবাষিকীর দিনে বগুড়ার কাহালুতে আওয়ামীলীগের দুগ্রæপের সংঘর্ষের জেরে রাত সাড়ে ৮ টায় শিলকঁওড় গ্রামে ঈদগা মাঠের কাছে বেলাল তালুকদার ও রহিমের সমর্থকরা রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। জানা গেছে বুধবার দুপুরে আওয়ামীলীগের দুগ্রæপের প্রথম সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে কাহালু চারমাথা এলাকায়। বিভিন্ন সুত্রে পাওয়া তথ্যমতে দলীয় কোন্দলে উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আলহাজ্ব হেলাল উদ্দিন কবিরাজ ও সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মান্নান দীর্ঘদিন ধরেই দলীয় কর্মসূচী পৃৃর্থকভাবে পালন করে আসছে। বঙ্গবন্ধুর জন্মবার্ষিকীর দিনে উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি দুপুরে কাহালু প্রেসক্লাবের সামনে ও সাধারণ সম্পাদক বিকেলে পৌরমঞ্চে আলোচনা সভা করেন। দুপুরে সভাপতির পক্ষে উপজেলা স্বেচ্ছা সেবকলীগের সহ-সভাপতি আলহাজ্ব আঃ রহিমের সমর্থকরা ট্রাক নিয়ে কাহালু চারমাথা এলাকায় গিয়ে নারহট্ট ইউপি চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি রুহুল আমিন তালুকদারের বিরুদ্ধে ¯েøাগান দেয়। একজনকে কটাক্ষ করে ¯েøাগান দেওয়ায় সেখানে উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ বাঁধে। সংঘর্ষে গুরুত্বরভাবে আহত হন রুহুল আমিন তালুকদার বেলাল (৫০) ও আঃ আজিজ (২৯)। পুলিশের হস্তক্ষেপে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রন করা হলেও বেলা আড়াইটার দিকে কাহালু উচ্চ বিদ্যালয়ের সামনে দুই গ্রæপের লোকজনের মধ্যে হট্টগোল শুরু হলে পুলিশের হস্তক্ষেপে তা নিয়ন্ত্রন হয়। বিকেল তিনটায় বিবিরপুকুর বাজারে বেলাল তালুকদারের সমর্থকদের উপর হামলার ঘটনা ঘটে। রাত সাড়ে ৮টার দিকে আবার শিলকঁওড় ঈদগাহ মাঠের কাছে রহিমের সমর্থক ও বেলার তালুকদারের সমর্থকরা ধারালো অস্ত্র নিয়ে সংঘর্র্ষে জড়িয়ে পড়ে। এঘটনায় ধারালো অস্ত্রের আঘাতে রহিমের পক্ষের দুজন ও বেলাল তালুকদারের পক্ষের দুজন গুরুত্বরভাবে জখম হয়েছেন। জখমীদের বগুড়া মেডিক্যালে ভর্তি করা হয়। তাদের মধ্যে ইউসুফ আলী (৩০) নামের একজনের অবস্থার অবনতি হলে তাকে ঢাকায় চিকিৎসার জন্য নিয়ে যাওয়া হয়েছে বলে পুলিশ সুত্রে জানা গেছে। এব্যাপারে রুহুল আমিন তালুকদার বেলাল জানান, উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতির ছত্রছায়ায় থেকে বিএনপি-জামাতের এজেন্ট আঃ রহিম তার সন্ত্রাসী বাহিনী দিয়ে প্রতিনিয়ত আওয়ামীলীগের ত্যাগী নেতাকর্মীদের আঘাত করছে। দলীয় ভাবমূর্তি যাতে নষ্ট না হয় তার জন্য সহনশীলতার পরিচয় আমি দিচ্ছি বার বার। সহনশীলতার পরিচয় দেওয়ায় দুবার আমার উপর হামলা চালায় রহিমের লোকজন। উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মান্নান জানান, বিএনপি থেকে আওয়ামীলীগে অনুপ্রবেশকারী আঃ রহিমের জন্য প্রতিনিয়ত অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটছে। এব্যাপারে উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আলহাজ্ব মোঃ হেলাল উদ্দিন কবিরাজকে মোবাইল করা হলে তিনি বলেন তোমার কাছে কোন মন্তব্য করবোনা। এব্যাপারে কাহালু থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ আমবার হোসেন জানান, আওয়ামীলীগের দুগ্রæপের মধ্যে অপ্রীতিকর ঘটনা আমরা আন্তরিকভাবে নিয়ন্ত্রন করেছি। রাতের বেলা শিলকঁওড় গ্রামে দুপক্ষের সংঘর্ষের ঘটনার খবর পেয়ে তাৎক্ষনিকভাবে সেখানে গিয়ে কাউকে পাওয়া যায়নি। দুগ্রæপের চারজন কমবেশী আহত হয়েছে । তাদের মধ্যে গুরুত্বর একজনকে ঢাকায় চিকিৎসার জন্য নিয়েছে গেছে সেই তথ্য আমরা পেয়েছি।

No comments

Leave a Reply

nineteen + 1 =

সর্বশেষ সংবাদ