Menu

কাহালুতে জায়গা সংক্রান্ত বিবাদঃ আটক মিথ্যা অভিযোগকারী ছাড়া পেল মুচলেকায়

সোনাতলা সংবাদ ডটকম (কাহালু প্রতিনিধি): সম্প্রতি কাহালু উপজেলার আড়োলা মালিপাড়ায় ২ ব্যক্তির নির্মাণাধীন বাড়ির জায়গার মালিকানা নিয়ে সৃষ্টি হয় জটিলতা। এই জায়গার জটিলতায় সত্য-মিথ্যা মিশিয়ে স্থানীয় নূর আলমসহ হিন্দু সম্প্রদায়ের বেশ কয়েকজন স্বাক্ষরিত একটি অভিযোগ উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবর দাখিল করেন। অভিযোগে হিন্দু সম্প্রদায়ের লোকজনকে উচ্ছেদ ও মন্দিরের জায়গা দখল করে বহুতল ভবন নির্মাণ হচ্ছে এমন একটি স্পর্শকাতর অভিযোগে নড়েচড়ে বসে স্থানীয় প্রশাসন। গতকাল বৃহস্পতিবার উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ মাছুদুর রহমান ঘটনাস্থলে গিয়ে এই অভিযোগের সত্যতা পাননি। যারফলে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি ক্ষুন্ন করার মতো স্পর্শকাতর একটি মিথ্যা অভিযোগ করায় নূর আলম (৫০) নামের এক ব্যক্তিকে ঘটনাস্থল থেকে আটক করা হয়। পরে ওই ব্যক্তিকে কাহালু থানা পুলিশের কাছে দিলে সেখানে মুচলেকা নিয়ে তাকে ছেড়ে দেওয়া হয়। জতিন মালী ও কোকিল মালীসহ বেশ কয়েকজন জানান, নির্মাণাধীন দুটি বাড়ির জায়গা সরকারি খাস সম্পত্তি । এই জায়গায় বসত-বাড়ি নির্মাণ হলে পূজা-আচনার সময়সহ স্থানীয় বাসিন্দাদের অনেক সমস্যা হবে। বসত-বাড়ি নির্মাণকারীদের মধ্যে সাইফুল জানান, জায়গাটি আমাদের পৈতিক সম্প্রত্তি। দীর্ঘদিন ধরে আমি ভোগ-দখল করে আসছি। অনিল জানান, দীর্ঘদিন যাবত আমার ভোগ-দখল করে আসা জায়গার উপর আমি বাড়ি নির্মাণ করছি। কাহালু উপজেলা ভূমি অফিসের সার্ভেয়ার জাহিদ জানান, জায়গাটি সরকারি ১ নং খাস খতিয়ান ভুক্ত। এদিকে জায়গার জটিলতা নিয়ে যাতে কেউ সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি নষ্টে উস্কানী মূলক কথা-বার্তা না বলে তার জন্য উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ মাছুদুর রহমান ও কাহালু থানার ওসি মোঃ জিয়া লতিফুল ইসলাম ঘটনাস্থলে গিয়ে সকলকে সতর্ক করে দিয়েছেন। এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ মাছুদুর রহমান বলেছেন জায়গার কাগজপত্র পর্যালোচনা করে দেখে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

No comments

Leave a Reply

eight − 3 =

সর্বশেষ সংবাদ