Menu

কাহালুতে বৈশাখী মেলার সৌখিন জিনিস পত্র সরবরাহে কুটির শিল্পের কারিগরদের ব্যস্ততা

সোনাতলা সংবাদ ডটকম (মুনসুর রহমান তানসেন, কাহালু বগুড়া): বাঙ্গালীর সংস্কৃতির অন্যতম একটি উৎসব বর্ষবরণ পহেলা বৈশাখ। পহেলা বৈশাখকে ঘিরে দেশের বিভিন্ন অঞ্চলের ন্যায় বগুড়ার কাহালু উপজেলা সদর থেকে শুরু করে গ্রাম পর্যায়ের মানুষদের মধ্যে চলছে নানা প্রস্ততি। ইতিমধ্যে বিভিন্ন রাস্তায় ও মানুষের বাড়ির দেয়াল এবং উঠানে লেখা হয়েছে বৈশাখের আগমন বার্তা। পহেলা বৈশাখ থেকে বগুড়া জেলা সদরের বৈশাখী মেলাসহ বিভিন্ন স্থানে মেলা বসানো হয়। বিভিন্ন স্থানে আয়োজন করা হয় বাঙ্গালীর সংস্কৃতির নানা অনুষ্ঠান। বাংলা নববর্ষে সবখানেই সৌখিনতার প্রদর্শন করা হয়। বৈশাখী মেলাসহ বিভিন্ন স্থানের উৎসবে প্রতি বছরই অত্র উপজেলার কুঠির শিল্পের কারিগররা সরবরাহ করে থাকে নানা সৌখিন জিনিষ পত্র ও খেলনা। কাহালু উপজেলার পাঁচখুর, আড়োলা, যোগীরভবন, পালপাড়া, নিশিন্দারা গ্রামে ঘুরে লক্ষ করা গেছে বৈশাখীর সৌখিন জিনিষ পত্র তৈরীর কাজে কারিগররা খুবই ব্যাস্ত। মৃত শিল্পীরা তৈরী করছেন নানা ধরনের খেলনা-পাতি। মাটির জিনিষ পত্রে রঙের কাজ করা হচ্ছে সৌখিনভাবে। সকল জিনিষ পত্রে লাগানো হচ্ছে বৈশাখীর ছোঁয়া। এদিকে তাঁতীরাও পহেলা বৈশাখের জন্য তৈরী করছেন নানা রকমের গামছা। কুটির শিল্পের কারিগররা তৈরী করছেন তাল গাছের আশঁ দিয়ে কৃটির শিল্পের নানা জিনিষ পত্র। পহেলা বৈশাখ মানে বাঙ্গালীদের ঘরে ঘরে উৎসবের আমেজ। বাঙ্গালীর এই অন্যতম উৎসবে শামিল হতে এখানকার তালপাতার পাখার গ্রামের পাখা তৈরী কারকরাও বসে নেই। তারা বৈশাখী মেলার জন্য তৈরী করছেন সৌখিন ও সুন্দর সুন্দর পাখা। যারা পহেলা বৈশাখ উপলক্ষে সুন্দর ও সৌখিনতার ছোঁয়া লাগাতে ব্যাস্ত সময় পার করছেন সেই সকল মৃত শিল্পী, কুটির শিল্পের কারিগররা বলছেন সুন্দর, সৌখিনতা ও সম্প্রীতি বাঙ্গালীর হাজার বছরের ঐতিহ্য। সুন্দর ও সৌখিনতার মাধ্যমে আলোয় ভরে উঠবে বাঙ্গালীর মনপ্রাণ। দুর হবে অন্ধকার সুন্দর আলোয় বিন্যাশ হবে সকল অশুভ শক্তির।

No comments

Leave a Reply

three × four =

সর্বশেষ সংবাদ