Menu

কাহালুর আড়োলাতে রাজ বাড়ির ধ্বংসাবশেষঃ মাটির নীচে চাপা পড়ে আছে বহু স্থাপনা

সোনাতলা সংবাদ ডটকম (মুনসুর রহমান তানসেন, কাহালু বগুড়া): বগুড়া শহর থেকে প্রায় ১২ কিঃ মিঃ উত্তর-পশ্চিম কোনে কাহালু উপজেলার পাইকড় ইউনিয়নের আড়োলায় রয়েছে রাজ বাড়ির ধ্বংসাবশেষ। স্থানীয় লোকজনের মতে আড়োলা হাট সহ তার আশে-পাশের এলাকা জুড়েই মাটির নীচে চাপা পড়ে আছে রাজ বাড়ির বহু স্থাপনা।

কালের বিবর্তনে সেই স্থাপনা গুলোর চিহৃ পর্যন্ত মুছে যাওয়ার পথে। যোগীর ভবনের প্রবীন ব্যক্তি নারায়ন মাস্টারের সাথে আলাপ-চারিতায় জানা গেছে উত্তর জনপদের ইতিহাস খ্যাত মহাস্থানগড়। সেখানে পুরাকৃর্তির বহু নিদের্শন রয়েছে।

 

তার ধারনামতে ওই সময়ের বহু স্থাপনা পাইকড় ইউনিয়নের বিভিন্ন স্থানে রয়েছে। আড়োলা তার আশে-পাশের এলাকার মাটি খনন করলেই সেই নমুনা পাওয়া যায়। সেখানকার প্রবীণজনদের মতে আড়োলা হাট ও হাটের পশ্চিম পার্শ্বে উচু জায়গাটি শালীবাহন রাজার রাজ বাড়ির ধ্বংসাবশেষ। শালীবাহন রাজার একমাত্র কন্যার নাম ছিলো অড়োলা দেবী।

 

এলাকায় জনশ্র“তি রয়েছে অড়োলা দেবী নিজের ইজ্জত বাঁচাতে নদীতে ঝাঁপ দিয়ে আতœহননের পথ বেঁচে নিয়েছিলো। যারফলে পরবর্তীতে অড়োলা দেবীর নামেই আড়োলার নাম করন হয়। বর্তমানে আড়োলা হাটের পাশেই রাজ বাড়ির ধ্বংসাবশেষ এলাকায় প্রতœতত্ত¡ বিভাগের সাইন বোর্ড দেওয়া হয়েছে অনেক আগেই।

 

স্থানীয় লোকজনের মতে সেখানে দুবার নামমাত্র মাটি খনন করা হয়েছে। কিন্ত পুরাকৃর্তির নিদর্শন বের না করেই অজ্ঞাত কারনে সেখানে মাটি খনন করা বন্ধ করে দেয়। স্থানীয় লোকজনের মতে পুরাকৃর্তির নিদর্শন গুলো খনন করে রক্ষনা-বেক্ষন করলে মহাস্থানগড়ের মত এখানে পর্যটকরা আসবে।

No comments

Leave a Reply

18 + 10 =

সর্বশেষ সংবাদ