Menu

কাহালুর সফল ও শ্রেষ্ঠ দলিল লেখক সুলতান পেয়েছেন বঙ্গবীর এমএজি ওসমানী স্মৃতি প্রদক

সোনাতলা সংবাদ ডটকম (কাহালু প্রতিনিধি): কাহালুর দলিল লেখক সমিতির সাধারন সম্পাদক আলহাজ্ব এস, এম শহিদুল আলম সুলতান সফল ও শ্রেষ্ঠ দলিল লেখক হিসেবে পেলেন বঙ্গবীর জেনারেল এম, এ, জি ওসমানী স্মৃতি প্রদক ২০১৯ ইং। মহান স্বাধীনতা দিসব উপললেক্ষ গত ২৯ মার্চ ঢাকায় স্বাধীনতার ৪৮ বছরে আমাদের প্রত্যাশা ও আজকের বাংলাদেশ শীর্ষক আলোচনা সভা এবং বঙ্গবীর জেনারেল এম, এ, জি ওসমানী স্মৃতি প্রদক প্রদান আনুষ্ঠানের আয়োজন করে আলোকিত মানুষের জন্য ফাউন্ডেশন। এই সংস্থাটি বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে প্রদক প্রদান করেছে। তারমধ্যে সারা বাংলাদেশে ৪ জন সফল ও শ্রেষ্ঠ দলিল লেখক নির্বাচন করে সংস্থাটি। এই ৪ জনের মধ্যে কাহালু দলিল লেখক সমিতির সাধারন সম্পাদক সুলতান পেলেন বঙ্গবীর জেনারেল এম, এ, জি ওসমানী প্রদক । গুনী দলিল লেখক সুলতান ১৯৬৭ সালের ৭ মে কাহালু উপজেলার কাইট গ্রামের এক সম্ভ্রান্ত— মুসলিম পরিবারে জন্ম গ্রহন করেন। তার পিতা মরহুম আলহাজ্ব এ, কে, এম শাহ সোলাইমানও ছিলেন এই অঞ্চলের একজন ভালো দলিল লেখক। পিতার মতো তিনিও একজন ভালো দলিল লেখক হিসেবে পরিচিত। যারফলে আলোকিত মানুষের জন্য ফাউন্ডেশন তাকে বঙ্গবীর জেনারেল এম, এ, জি ওসমানী প্রদক প্রদান করে সম্মান করলো। সুলতান দলিল লেখার পাশাপাশি বিভিন্ন সামাজিক, সাংস্কৃতিক ও মটর শ্রমিক ইউনিয়নের মতো সংগঠনের সাথে জড়িত রয়েছেন। এছাড়াও তিনি কাহালু সদর ইউনিয়ন পরিষদের দু-বার মেম্বার নির্বাচিত হয়েছিলেন। তিনি একবার প্যানেল চেয়ারম্যান হিসেবেও নিষ্ঠার সাথে দায়িত্ব পালন করে ইউনিয়নবাসীর সেবা করেছেন। তিনি এক সময় এই জনপদের ঐতিহ্যবাহী নাট্য সংগঠন কাহালু থিয়েটারের সাথেও সম্পৃক্ত ছিলেন। এছাড়াও বগুড়া মটর শ্রমিক ইউনিয়ন কাহালু শাখার সভাপতি ছিলেন। এখনো তিনি মটর শ্রািমক ইউনিয়ন সংগঠনের সাথে জড়িত রয়েছেন। আলহাজ্ব এস, এম শহিদুল আলম সুলতান জানান, মহান স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে আলোকিত মানুষের জন্য ফাউন্ডেশন আমাকে বঙ্গবীর জেনারেল এম, এ, জি প্রদক প্রদান করবে তা আমি কোনোদিন কল্পনাই করিনি।

No comments

Leave a Reply

5 × four =

সর্বশেষ সংবাদ