Menu

কাহালু উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ত্রি-মুখী লড়াইয়ের সম্ভাবনা

সোনাতলা সংবাদ ডটকম (কাহালু প্রতিনিধি): আগামী ১৮ মার্চ কাহালু উপজেলা পরিষদ নির্বাচনকে সামনে রেখে সাধারন ভোটারদের মধ্যে তেমন কোনো সরগরম না থাকলেও অনেকে মনে করছেন এখানে ত্রি-মুখী লড়াই হতে পারে। এখানে অন্য কোনো দলের চেয়ারম্যান প্রার্থী না থাকলেও আওয়ামীলীগ প্রার্থীর সাথে আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী আরো দুজন প্রার্থী ভোটযুদ্ধে মাঠে-ময়দানে রয়েছেন। এদের তিনজনেরই কর্মী-সমর্থকদের মধ্যে শোনা যাচ্ছে কেউ কাউকে ছার দিতে রাজী নয়। চেয়ারম্যান পদে নির্বাচনী প্রতিদ্বন্দিতায় রয়েছেন আওয়ামীলীগ মনোনীত উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক আব্দুল মান্নান। আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী (সতন্ত্র) প্রার্থী হিসেবে লড়ছেন উপজেলা আওয়ামীলীলীগের সভাপতি ও পৌর মেয়র আলহাজ্ব হেলাল উদ্দিন কবিরাজের একমাত্র ছেলে জেলা ছাত্রলীগের সাংস্কৃতিক বিষয়ক সম্পাদক আল হাসিবুল হাসান সুরুজ। অপরদিকে আওয়ামীলীগের আরেক বিদ্রোহী (সতন্ত্র) প্রার্থী উপজেলা আওয়ামীলীগের সাবেক যুগ্ন সম্পাদক মোঃ মোশফিকুর রহমান কাজল। মাঠে ময়দানে তথ্য নিয়ে দেখা গেছে ওয়ার্ড ও ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের বেশীরভাগ নেতাকর্মিরা আব্দুল মান্নান ও আল হাসিবুল হাসান সুরুজের পক্ষে নির্বাচনী প্রচারনায় নেমেছে। আর মোশফিকুর রহমান কাজলের পক্ষে গোপনে আওয়ামীলীগের কিছু নেতাকর্মিরা কাজ করছেন। আবার অনেক আওয়ামীলীগের নেতাকর্মি কারো পক্ষেই নির্বাচনী প্রচারনায় নামেনি। তবে সাধারন মানুষের তথ্যমতে একদিকে নৌকা প্রতিক অন্যদিকে আওয়ামীলীগ ঘরনারই আরো দুজন প্রার্থী। যারফলে তৃণমূল আওয়ামীলীগের সাধারন কর্মিরা সহজে কারো পক্ষে প্রকাশ্যে মাঠে নামছেনা। এদেিক আওয়ামীলীগের নেতাকর্মিদের বিষয়ে কারো তেমন মাথা ব্যাথা না থাকলেও অনেকের মুখে শোনা যাচ্ছে এখানে চেয়ারম্যান পদে ত্রি-মুখী হতে পারে। চেয়ারম্যান প্রার্থী ছাড়াও এখানে ভোটযুদ্ধে অবতীর্ণ হয়েছেন সংরক্ষিত মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৪ জন ও পুরুষ ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৬ জন । নির্বাচন অফিসের সর্বশেষ হিসেব অনুযায়ী অত্র উপজেলায় সর্বমোট ভোটার ১ লাখ ৭১ হাজার ৫৫১ জন। এদিকে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ আরাফাত রহমান জানিয়েছেন এখানে কাউকে বিশেষ সুবিধা দেওয়া হবেনা। এখানে শতভাগ নিরপেক্ষ নির্বাচন করতে যা যা করার দরদার আমরা তাই করবো।

No comments

Leave a Reply

19 − 17 =

সর্বশেষ সংবাদ