Menu

কাহালু থিয়েটারের উদ্যোগে সেতারা বানুর কিচ্ছা নাটকের প্রস্তুতি প্রদর্শনী চলছে

সোনাতলা সংবাদ ডটকম (মুনসুর রহমান তানসেন, কাহালু বগুড়া): ভারতে গমন উপলক্ষে গত শুক্রবার রাতে কাহালু থিয়েটার সেতারা বানুর কিচ্ছা নাটক স্থানীয় অডিটোরিয়াম হলে মঞ্চায়ন করা হয়।

বিশাণ নাট্য সংস্থার আমন্ত্রনে এই নাটকটি নিয়ে আগামীকাল সোমবার ভারতের পশ্চিমবঙ্গের মালদাহ জেলার গাজোলে যাচ্ছে কাহালু থিয়েটারের ১৫ সদস্যের একটি টিম। নাটকটি আগামী ২৪ ডিসেম্বর বিশাণ নাট্যসংস্থার নাট্য মেলায় প্রদর্শিত হবে।

নাটকের প্রস্ততি প্রদর্শনীর দর্শক ছিলেন বগুড়া জেলা পুলিশ সুপার আলী আশরাফ ভূঞা, বিপিএম বার, বগুড়ায় কর্মরত পুলিশের অন্যান্য কর্মকর্তা, তাদের পরিবার-পরিজন, গ্রাম থিয়েটারের বিভিন্ন ইউনিটের সংগঠকসহ প্রায় শতাধিক ভি আই পি দর্শক।

সেতারা বানুর কিচ্ছা নাটক প্রদর্শনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ মাছুদুর রহমান। বিশেষ অতিথি ছিলেন কাহালু থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ জিয়া লতিফুল ইসলাম, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান আঃ রশিদ লালু ও উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার নজিবর রহমান।

আব্দুল হান্নান নির্দেশিত ও শাহাজাত আলী বাদশার রচনায় সেতারা বানু কিচ্ছা নাটকে উঠে এসেছে গ্রামীণ জনপদে মুক্তিযুদ্ধ বিরোধী এক পোদ্দার ও তার ছেলে মুমিনুরের ক্যু-কর্মের নানা ঘটনাবলী। মুক্তিযুদ্ধে শহীদ খয়বরের কন্যা। সেতারার মা পাকসেনাদের দারা নির্যাতিন হয়ে আতœহত্যা করেছে। বৃদ্ধ ভিক্ষুক দাদাকে নিয়ে সেতারা রোসনাইকান্তি গ্রামে বাস করে। তাদের যেন দুঃখ-কষ্টের কোনো সীমা নাই।

অপরূপা সেতারার প্রতি ক্যু-নজর পড়ে পোদ্দার, পোদ্দারের ছেলে মুমিনুর, স্থানীয় মোড়লের। এই ধরনের লম্পট মানুষের নানা প্রলোভনের পরেও সেতারা কখনো প্রতিবাদী হয়ে আবার কখনো কৌশলী হয়ে নিজেকে সামলিয়ে রেখেছিলো।

সেতারা গ্রামের প্রতিবাদী যুবক চাঁনকে ভালোবাসে। চাঁনও সেতারাকে ভালোবাসে কিন্ত অভাব অনটনের কারনে সেতারাকে কিছুটা এড়িয়ে চলে। এদিকে পোদ্দার ও তার ছেলের ক্যু-কর্মের প্রতিবাদে চাঁন গ্রামের যুবকরা একত্রিত হতে না হতেই পোদ্দার কৌশনে যুবকদের মধ্যে আবু ও সোবাহানকে তার পক্ষে নেয়। চাঁনের সাথে থাকে সোলেমান।

পোদ্দারের কথামত না চলার কারনে সেতারার দাদাকে গুম করা হয়। সেতারাকে হাইজাক করে তার সর্বস্ব লুটে নেয় মুমিনুল। পোদ্দারের প্রভাবে এই সব ঘটনার দোষ চাঁন ও সোলেমানের ঘারে চাপানোর চেষ্টা করা হয়। নষ্ট মেয়ে আখ্যা দিয়ে পোদ্দার আবু ও সোলেমানকে দিয়ে সেতারার উপর চালায় নির্যাতন। পোদ্দার ও তার ছেলে মুমিনুলের উপর প্রতিশোধ নিতে ফন্দি আঁটে সেতারা।

এক রাতে কৌশলে মুমিনুল ও পোদ্দারকে কৌশলে সেতারা তার ঘরে নিয়ে শিকল আটকে দিয়ে আগুন ধরে দেয়। এই সব ঘটনার মধ্য দিয়ে ফুটে উঠে গ্রামীণ জনপদের এক প্রতিবাদী নারীর কথা।

সেতারা বানুর কিচ্ছা নাটকে বিভিন্ন চরিত্রে যারা অভিনয় করেছেন তারা হলেন ফরিদুর রহমান ফরিদ, মুনসুর রহমান তানসেন, সাইদুর রহমান, আঃ হান্নান, স্মৃতি, টুটুল, গোলাম রব্বানী, পংকজ ও আইনুল।

এদিকে ভারত গমন উপলক্ষে নাটকটির প্রস্ততি প্রদর্শনী দেখে সকল দর্শক মৃগ্ন হয়ে নাটকটি নিজ দেশের বিভিন্ন মঞ্চে মঞ্চায়নের আহবান জানিয়েছে।

No comments

Leave a Reply

5 × two =

সর্বশেষ সংবাদ

নির্বাচিত সংবাদ