Menu

গাইবান্ধায় দাফন ও কবরস্থের ১২ দিন পর নির্মাণাধীন বিল্ডিংয়ে পাওয়া গেল বৃদ্ধার লাশ!

বায়েজীদ গাইবান্ধা জেলা প্রতিনিধি : প্রতিনিয়ত মিলছে আজব সব খবরাখবর দেখা যাচ্ছে নতুন নতুন সব দৃশ্য । আমারা আগে শুনেছি বন জঙ্গল বেশী থাকায়  শিয়াল কুকুরে মরদেহ টেনে হেচরে বের করে নিয়ে গেছে । অনেকের পোশা প্রানী গুলো এরকম করেছে মনিবের ভালোবাসার টানে কিন্তু বর্তমান সময়ে শত্রুতা না ভালোবাসা এর কোন টাই দৃশ্য মান নয় ৯৫ বছর বয়সি এক নারীর কবর হতে মরদেহ উত্তোলন করে পরের নির্মানাধীন বিল্ডিং য়ে রেখে আসার ঘটনায়টি জেলা জুড়ে চাঞ্চল্য সৃষ্টি করেছে ।
ঘটনাটি ঘটেছে ,গাইবান্ধা জেলার সাদুল্লাপুর উপজেলার ধাপেরহাট হাসানপাড়া গ্রামে মৃত তসির উদ্দিনের স্ত্রী ৯৫ বছর বয়সী নারী নছু মাই বেগম গত ৫ ফেব্রুয়ারী বার্ধক্য জনিত কারনে মারা গেলে তাকে দাফনের ১২ দিন পর  কবরের লাশ এখন  ভাতগ্রাম নিবাসী প্রবাসী এক ব্যক্তির নির্মাধীন বিল্ডিংয়ে থাকায়  উৎসুক জনতা  ভীড় করছে, ঘটনাটি এলাকায় বেশ চাঞ্চল্যকর সৃষ্টি করেছে।
প্রতক্ষ্যদর্শীরা জানায় , উক্ত নারী গত ৫ ফেব্রুয়ারি বার্ধক্য জনিত কারনে মারা যায়। এরপর ইসলাম শরিয়তের বিধান অনুযায়ী লাশ কাফন  করেছে তার আত্মীয়স্বজন, পাড়া প্রতিবেশী । এরপর ১২ দিন পর ১৭ ফেব্রুয়ারি  সকালে সেই লাশ এখন এক হাজার গজ দুরে পার্শ্ববর্তী নির্মাধীন বিল্ডিং ঘড়ে এমন অবস্থায় মরদেহ পড়ে থাকতে দেখে তারা স্থানীয়রা হতভম্ব হয়ে পড়ে। কাফনের কাপড় পড়নে নেই চুল আধা ছেড়া প্রায় শরীরের অংশ ফাঁকা।
আত্মীয়রা আরো  জানান আমরা হতভম্ব হয়েছি কিভাবে এটা হলো আল্লাহ পাক ভাল জানেন, আমরা আজ তার খতম করার প্রস্তুতি নিয়েছি। ইসলামের ধর্মীয় বিধান অনুসারে  লাশ আবারো কবরে রাখার প্রস্তুতি নিচ্ছি। সাদুল্লাপুর সাদুল্লাপুর থানার আওতাভুক্ত ধাপেরহাট পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রে ইনচার্জের নেতৃত্বে একটি টিম ঘটনা স্থল পরিদর্শনে রয়েছে।
এবিষয়ে সত্যতা নিশ্চিত করে  সাদুল্লাপুর থানা অফিসার ইনচার্জ মাসুদ জানান, এঘটনাটি কি কারণে ঘটেছে তা এখনো জানা যায়নি।  বিষয়টি তদন্ত করে দেখে জানা যাবে কি কারণে ঘটলো এমন ঘটনা না । তিনি আরো জানান, সরেজমিনে পুলিশের একটি টিম পরিদর্শন করেছেন ।

No comments

Leave a Reply

four × 5 =

সর্বশেষ সংবাদ