Menu

গাবতলীতে অপহরনের ৩৭ দিনপর পুকুর থেকে শিশুর হাত-পা বাধা লাশ উদ্ধার

আমিনুর ইসলামঃ বগুড়ার গাবতলীতে অপহরন করে ৫ লাখ টাকা মুক্তিপন না পেয়ে ৩৭ দিনপর পুকুর থেকে হানজালাল (৬) নামের এক শিশুর অর্ধগলিত বস্তাবদি লাশ উদ্ধার করেছে থানা পুলিশ। থানায় দায়েরকৃত জিডি সুত্র জানাযায়, ২০২০ সালের ১৩ ডিসম্বর বিকেল ৩ টায় বাড়ির পশ্চিমপার্শে খেলতে গিয়ে গাবতলী উপজলার রামশ্বরপুর ইউনিয়নের নিশুপাড়া গ্রামের মালয়েশিয়া প্রবাসী পিন্টু মিয়া প্রাং’র ছেলে হানজালাল নিখােঁজ হয়। সন্ধ্যা পযন্ত ছেলেকে কােথাও খুঁজে না পেয়ে ঘটনার দিনগত রাতে মা তাসলিমা বেগম বাদী হয়ে গাবতলী মডেল থানায় ৫৭৮ নং একটি নিখােঁজ হওয়ার জিডি করেন। এর পর থানা, র‌্যাবসহ বিভিন্ন জায়গায় ছেলেকে উদ্ধারের জন্য ছুটে বেড়ান মা তাসলিমা বেগম। মাঝে মধ্যে ৫ লাখ টাকা মুক্তিপন চেয়ে ফােন করা হতাে মা তাসলিমার কাছে। মুক্তিপনের বিষয়টি থানা ও র‌্যাবকে জানানাে হলেও কােনও প্রতিকার পাননি বলে মা তাসলিমা বেগম ক্ষােভ ও দুঃখ প্রকাশ করেন। অপহরনের আগে শিশু হানজালাল ¯ানীয় নিশুপাড়া বটতলা হাফেজিয়া মাদ্রাসায় বাড়ি থেকে প্রতিদিন সকালে আরবী পড়তে যেত। তিনি আরাে জানান, ছেলে হানজালাল অপহরনের কয়েক মাস আগে একটি ফােন থেকে পরিচয় না দিয় আমাকে বলে, তার স্বামী বিদেশ থাকে আমাকে ২ লাখ টাকা কজর্ (ধার) দে। তিনি আরাে জানায়. চলতি জানুয়ারী মাসের ২১ তারিখ বহস্পতিবার সন্ধ্যা ৬ টায় আমার মােবাইল ফােনে একটি নাম্বার থেকে ফােন করে বলে ৫ লাখ টাকা দিলি না, তাের ছেলের লাশ পাঠিয়ে দিলাম। তাের ছেলের লাশ রামেশ্বরপুর নিশুপাড়া বটতলা হাড়ির পুকুর ফেলে গেলাম। এ সংবাদ পাওয়ার পর বিষয়টি আমি আত্মীয় স্বজন প্রতিবেশিদের অবগতি করি ও গাবতলী মডেল থানা পুলিশকে জানায়। সংবাদপেয়ে পুলিশ রাত ৯ টায় অপহরনকারীদের তথ্যদেয়া ঠিকানা হাড়ির পুকুর থেকে গাবতলী মডেল থানা পুলিশ হানজালাল’র বস্তাবন্দি অর্ধগলিত লাশ উদ্ধার করে। ¯ানীয়রা ও পুলিশ জানায় লাশ উদ্ধারের পর দেখা যায়, মুখ ও হাত-পা বাধা। পানিতে যাতে ডুবে যায় লাশের বস্তায় মধ্য ইট বাধা ছিল। এব্যপারে গাবতলী মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) নুরুজ্জামানের সাথে যােগাযােগ করা হলে তিনি, শিশু হানজালাল’র লাশ উদ্ধারের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। লাশ ময়না তদÍর জন্য বগুড়া মর্গে পাঠানাে হয়েছে। মাইল ফানর সুত্রধর তদÍ শুরু হয়েছে। তিনি আশা করেন অতিদ্রæতই হত্যকারী শন্মাক্ত ও গ্রেফতার হবে। এ রিপার্ট লেখা পর্যÍ থানায় মামলার প্র¯তি চলছে বলে জানাগেছে।

No comments

Leave a Reply

five + 1 =

সর্বশেষ সংবাদ