Menu

গাবতলীতে ইউপি চেয়ারম্যানকে লাঞ্ছিতঃ থানায় মামলা

গাবতলী (বগুড়া) প্রতিনিধি ঃ বগুড়ার গাবতলীতে ২লাখ টাকা চাঁদার দাবীতে সোনারায় ইউনিয়ন পরিষদের ডিজিটাল সেন্টারের বিভিন্ন মালামাল ভাঙচুর ও ইউপি চেয়ারম্যান মজিবুর রহমান আলতাব (৪৫)কে লাঞ্ছিত করা হয়েছে। এ ঘটনায় থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।
মামলাসূত্র ও সরেজমিনে জানা গেছে, উপজেলার সোনারায় ইউনিয়নের জামিরবাড়িয়া গ্রামের মৃত আহম্মেদ আলী আকন্দের ছেলে মজিবুর রহমান আলতাব সোনারায় ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হবার পর থেকে বিভিন্ন উন্নয়নমূলক ও পরিষদের যাবতীয় কাজ সম্পন্ন করে আসছেন। কিন্তু স্থানীয় সন্ত্রাসীরা ২লাখ টাকার চাঁদার দাবীতে ইউপি চেয়ারম্যানকে মাঝেমধ্যে খুন-জখমের হুমকি দিয়ে আসছিলো। এরই এক পর্যায়ে গত ১৯মে দুপুরে ওই সন্ত্রাসীরা ইউনিয়ন পরিষদে চেয়ারম্যানকে না পেয়ে ডিজিটাল সেন্টারের ল্যাপটপ, প্রিন্টার মেশিনসহ বিভিন্ন মালামাল ভাঙচুর করে এবং নগদ ৯৫ হাজার টাকা লুট করে নিয়ে যায় বলে মামলায় উল্লেখ করা হয়। এ সময় চেয়ারম্যানের ভাতিজা আল আমিন (২৮)কে মারপিট করে হাত ভেঙে দিয়ে তার ৪০হাজার টাকা মূল্যের একটি এ্যান্ড্রয়েড স্মার্টফোন ছিনিয়ে নেয় ঐ সন্ত্রাসীরা। এ ঘটনায় গত ১৯মে সোনারায় ইউপি চেয়ারম্যান মজিবুর রহমান আলতাব বাদী হয়ে ৫জনের নাম উল্লেখ করে এবং ১০/১২জন অজ্ঞাত বলে থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। মামলার পর আসামীরা আরো বেপরোয়া হয়ে উঠে। গতকাল রবিবার সকালে ওই সন্ত্রাসীরা সোনারায় ইউনিয়ন পরিষদে আবারো হামলা চালায়। এ সময় বাধা দিতে গেলে চেয়ারম্যান মজিবুর রহমানকে লাঞ্ছিত করা হয়। এ ব্যাপারে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ও মডেল থানার তদন্ত ওসি জামিরুল ইসলাম বলেন, চেয়ারম্যানকে মারপিট করে পরিষদে তান্ডব চালানো হয়েছে। বর্তমানে উত্তেজনাকর পরিস্থিতি সামাল দিতে ঘটনাস্থলে বিপুল সংখ্যক পুলিশ মোতায়েন রয়েছে।

No comments

Leave a Reply

fifteen + 15 =

সর্বশেষ সংবাদ