Menu

গাবতলীতে উধাও পরকীয়া প্রেমিক-প্রেমিকাকে কক্সবাজার থেকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ

সাব্বির হাসান গাবতলী (বগুড়া) প্রতিনিধিঃ বগুড়ার গাবতলীতে ব্যবসায়ী স্বামীর বিপুল পরিমান অর্থ সম্পদ নিয়ে উধাও হয়ে যাওয়া স্ত্রী ও তার পরকীয়া প্রেমিককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গত ১৫আগষ্ট রাতে উধাও হলে স্বামীর অভিযোগের ভিত্তিতে গত ১৭আগষ্ট কক্সবাজার থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়। এ ঘটনায় ওই প্রেমিক জুটি ও একজন সহযোগির বিরুদ্ধে থানায় মামলা দায়ের করলে গতকাল সোমবার তাদেরকে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।
জানা গেছে, গাবতলীর নাড়ুয়ামালা ইউনিয়নের চাকলা দক্ষিণপাড়া গ্রামের মৃত ওসমান আলী প্রাং এর ছেলে পান-সুপারী ব্যবসায়ী শহিদ হোসেন বদির সঙ্গে সারিয়াকান্দি উপজেলার হাটফুলবাড়ী হরিনা গ্রামের মোজাহার আলীর মেয়ে রুম্পা বেগম (২৮) এর দশ বছর আগে পারিবারিকভাবে বিয়ে হয়। দাম্পত্য জীবনে ২টি পুত্র সন্তানের জন্ম হয়। প্রথম পুত্র রাফি (৮) এবং ২য় পুত্র সিয়াম (২) বছর। কিন্তু গত একবছর পূর্বে থেকে শহিদ হোসেন বদির স্ত্রী ২সন্তানের জননী রুম্পা বেগম সারিয়াকান্দি উপজেলার হাট ফুলবাড়ী গরুহাটি গ্রামের তহছিন মেম্বারের ছেলে ২সন্তানের জনক বদিউজ্জামানের (২৭) সঙ্গে পরকীয়া প্রেমে জড়িয়ে পড়ে। পরকীয়া প্রেমের সূত্র ধরে ঘর বাঁধার স্বপ্ন নিয়ে এই প্রেমিক জুটি গত ১৫আগষ্ট রাত সাড়ে ৯টায় সকলের অগোচরে রুম্পা বেগম তার স্বামীর ঘরে রক্ষিত নগদ ৭লাখ ৩০হাজার টাকা, ৩ভরি স্বর্ণের গহনা নিয়ে পালিয়ে যায়। এঘটনায় রুম্পার স্বামী শহিদ হোসেন বদি থানায় অভিযোগ দায়ের করে। অভিযোগের প্রেক্ষিতে পুলিশ গত ১৬আগষ্ট প্রথমে পরকীয়া প্রেমিক বদিউজ্জামানের সহযোগী হাট ফুলবাড়ী ইউনিয়নের হরিনা গ্রামের ভুট্রো মন্ডলের ছেলে শাহিন মিয়া (২৭)কে আটক করে। পরে শাহিনের দেয়া তথ্য অনুযায়ী গাবতলী থানা পুলিশের একটি দল কক্সবাজার পুলিশের সহযোগিতায় তাদের দু’জনকে গ্রেফতার করেন। গ্রেফতারকৃতদের কাছ থেকে নগদ ২লাখ ১হাজার টাকা এবং ২ভরি ১আনা স্বর্ণের গহনা উদ্ধার করে পুলিশ। এ ঘটনায় শহিদ হোসেন বদি বাদী হয়ে গত ১৮আগষ্ট থানায় এজাহার দায়ের করলে গতকাল সোমবার গ্রেফতারকৃতদের জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। বিষয়টি থানার ওসি সেলিম হোসেন নিশ্চিত করেছেন।

No comments

Leave a Reply

3 × 3 =

সর্বশেষ সংবাদ