Menu

গাবতলীতে জমির বিরোধে এক ব্যক্তিকে কুপিয়ে জখম

সোনাতলা সংবাদ ডটকম (বগুড়া প্রতিনিধি): বগুড়া গাবতলীতে বসতবাড়ীর জমিজমার বিরোধে রামদা ও ধারালো অস্ত্র দিয়ে খাজামুদ্দিন মোল্লা (৫৫) নামের এক ব্যক্তিকে কুপিয়ে জখম করেছে। গুরুত্বর আহত খাজামুদ্দিন মোল্লা এখন বগুড়া শজিমেক হাসপাতালে মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছে। গত বুধবার রাত ৯টায় উপজেলার নেপালতলী ইউনিয়নের সানাইপুকুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় আহত খাজামুদ্দিনের বড়ভাই বাদশা মোল্লা বাদী হয়ে থানায় মামলা দায়ের করলে পুলিশ ঘটনার রাতেই মকবুল হোসেন আকন্দ নামের এক ব্যক্তিকে গ্রেফতার করেছে।
জানা গেছে, ওই গ্রামের মৃত মফিজ উদ্দিন মোল্লার ছেলে বাদশা মোল্লার সাথে একই গ্রামের ভেটু আকন্দের ছেলে ফারুক আকন্দের বসতবাড়ীর জমি নিয়ে বিরোধ চলে আসছিল। এরই জের ধরে গত ২৪জুলাই রাত ৯টায় ফারুকের নেতৃত্বে একদল সন্ত্রাসী বাদশা মোল্লার বাড়ীতে প্রবেশ করে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে। এ সময় খাজামুদ্দিন মোল্লা বাধা দিলে প্রতিপক্ষ ফারুকসহ তার দলবল হাতে থাকা রামদা ও বিভিন্ন ধারালো অস্ত্র দিয়ে মাথা ও শরীরের বিভিন্নস্থানে কুপিয়ে জখম করে। স্থানীয়রা আশংকাজনক অবস্থায় খাজামুদ্দিনকে উদ্ধার করে প্রথমে গাবতলী হাসপাতালে পরে অবস্থার অবনতি হলে বগুড়া শজিমেক হাসপাতালে ভর্তি করে। এ ঘটনায় আহত খাজামুদ্দিনের বড়ভাই বাদশা মোল্লা বাদী হয়ে ১৪জনের নাম উল্লেখ করে এবং ১৫/২০জনকে অজ্ঞাত বলে থানায় একটি মামলা দায়ের করে। এরই প্রেক্ষিতে পুলিশ ওই রাতেই সানাইপুকুর গ্রামের মহররম আকন্দের ছেলে মকবুল হোসেন আকন্দকে গ্রেফতার করেছে।

No comments

Leave a Reply

20 + 12 =

সর্বশেষ সংবাদ