Menu

গাবতলীতে পুলিশের হস্তক্ষেপে প্রেমিক যুগলের বিয়েঃ প্রেমিকার মুখে হাসি

সোনাতলা সংবাদ ডটকম (বগুড়া প্রতিনিধি): বগুড়ার গাবতলীতে এএসপি সাবিনা ইয়াছমিনের হস্তক্ষেপে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হলো প্রেমিক যুগল। গতকাল বুধবার গাবতলী মডেল থানায় এ ঘটনা ঘটে। জানা গেছে, গাবতলী পৌরসভাধীন জয়ভোগা গ্রামের আঃ বাছেদের ছেলে আল মুঈদ (২২) এর সঙ্গে একই গ্রামের হাফিজার প্রাং এর মেয়ে কলেজ পড়–য়া হ্যাপি আক্তার (১৮)’র দু’বছর পূর্বে থেকে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। এই প্রেমের সুবাদে হ্যাপি আক্তার কিছুদিন আগে থেকে বিয়ের জন্য প্রেমিক মুঈদকে চাপ সৃষ্টি করে। কিন্তু মুঈদ বিয়ে করবে না বলে এড়িয়ে যায়। একপর্যায়ে গত ১১জুন ভিকটিম হ্যাপি সহকারী পুলিশ সুপার (গাবতলী সার্কেল) সাবিনা ইয়াছমিনের সহযোগিতা চায়। ভিকটিম হ্যাপির অভিযোগের ভিত্তিতে সহকারী পুলিশ সুপার (গাবতলী সার্কেল) সাবিনা ইয়াছমিনের নিদের্শে মুঈদকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে। পরে আজ বুধবার পুলিশ উভয়পক্ষের লোকজনকে থানায় হাজির করে। এরপর উভয়পক্ষের সম্মতিতে ২লাখ ৫০হাজার টাকা দেন মোহরানায় হ্যাপি এবং মুঈদ এর বিয়ে হয়। এ ব্যাপারে সহকারী পুলিশ সুপার (গাবতলী সার্কেল) সাবিনা ইয়াছমিন বলেন, হ্যাপি অভিযোগের ভিত্তিতে অভিযুক্তদের নিয়ে এসে উভয়পক্ষের সম্মতিতে বিবাহ সম্পন্ন হয়েছে।

No comments

Leave a Reply

eighteen + 7 =

সর্বশেষ সংবাদ

নির্বাচিত সংবাদ