Menu

গাবতলীতে বিভিন্ন কর্মসূচীর মধ্যদিয়ে স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস পালিত

সোনাতলা সংবাদ ডটকম (বগুড়া প্রতিনিধি): বগুড়ার গাবতলীতে মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস গকতাল মঙ্গলবার ২৬মার্চ যথাযথ মর্যাদায় বিভিন্ন কর্মসূচীর মধ্য দিয়ে পালিত হয়েছে। কর্মসূচীর মধ্যে রয়েছে ০৫ মার্চ থেকে ১০মার্চ পর্যন্ত বঙ্গবন্ধুর ভাষণের প্রতিযোগীতা অনুষ্ঠিত হয়। ২৬ মার্চ সকাল ৬টায় ৩১বার তোপধ্বনীর মধ্য দিয়ে দিবসটির শুভ সুচনা হয়। এরপর কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে উপজেলা প্রশাসন, মডেল থানা পুলিশ প্রশাসন, আওয়ামীলীগ, বিএনপি, পৌরসভা, জাতীয় পার্টিসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক প্রতিষ্ঠান, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, এনজিও সংগঠনগুলো পুষ্পমাল্য অর্পণ করেন। সকাল ৭সাড়ে টায় শোভাযাত্রা শেষে একযোগে জাতীয় সংগীত পরিবেশন করেন। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আব্দুল ওয়ারেছ আনসারীর সভাপতিত্বে সকাল সোয়া ৮টায় গাবতলী পাইলট হাইস্কুল মাঠে উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে কুচকাওয়াজ ও সমাবেশ শেষে বিভিন্ন স্কুল-কলেজের ছাত্র-ছাত্রীদের ডিসপ্লে অনুষ্ঠিত হয়। শেষে বিজয়ীদের হাতে পুরস্কার বিতরণ করেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আব্দুল ওয়ারেছ আনসারী। এদিকে বেলা ১১টায় পাইলট হাইস্কুল মাঠে সকল বীর মুক্তিযোদ্ধা ও পরিবারবর্গের সংবর্ধনা অনুষ্ঠান সাবেক এমপি ও জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার আমিনুল ইসলাম সরকার পিন্টু বক্তব্যের মাধ্যমে প্রশাসনের আয়োজিত সংবর্ধনা অনুষ্ঠান বর্জন করার ঘোষনা দেন। এতে সকল মুক্তিযোদ্ধারা একমত হন। এরএক পর্যায়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আব্দুল ওয়ারেছ আনসারী বলেন, বীর মুক্তিযোদ্ধা ও পরিবারবর্গের সংবর্ধনা অনুষ্ঠানের আয়োজন সামান্য ত্রুটি হওয়ার বিষয়টি স্বীকার করেন বলেন, আমিও একজন মুক্তিযোদ্ধার সন্তান। পরবর্তীতে এ ধরনের ভুল হবে না বলে সকল মুক্তিযোদ্ধা ও পরিবারবর্গদেরকে ক্ষমা চান। তখন সকল মুক্তিযোদ্ধারা শান্ত হন। শেষে সকল মুক্তিযোদ্ধা ও পরিবারবর্গের মধ্যে খাবার প্যাকেট ও প্রাইজবন্ড বিতরণ করেন। ৩টায় মহিলাদের ক্রীড়া প্রতিযোগিতা হয়। সাড়ে ৪টায় শহীদ মিনারে বঙ্গবন্ধুর ৭মার্চের ভাষণের তাৎপর্য ও দেশের উন্নয়ন নিয়ে আলোচনা অনুষ্ঠিত হয়। সন্ধ্যায় পাইলট হাইস্কুল মাঠে মুক্তিযোদ্ধাদের চেতনায় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।

No comments

Leave a Reply

15 + 6 =

সর্বশেষ সংবাদ