Menu

গাবতলীতে ভাবিকে শ্লীলতাহানীর প্রতিবাদ করায় দেবরকে হত্যাঃ থানায় মামলা

সোনাতলা সংবাদ ডটকম (আমিনুর ইসলাম): বগুড়ার গাবতলীতে ভাবির শ্লীলতাহানীর ঘটনাকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষে দেবর খুন হওয়ার ঘটনা ঘটেছে।

ঘটনাটি ঘটেছে আজ বৃহস্পতিবার (৬ আগষ্ট) সকাল ৭ টায় গাবতলী উপজেলার নেপালতলী ইউনিয়নের পারকাঁকড়া ভাঙ্গিরী পাড়া গ্রামে। এলাকাবাসী ও থানা সুত্রে জানাগেছে, উক্ত গ্রামের এনামুল হকের ছেলে রিফাত পার্শ্ববর্তী উজ্জলের বাড়িতে প্রবেশ করে রান্নারত স্ত্রী শিউলী রানীকে পিছন থেকে ঝাপটে ধরে শ্লীলতাহানী ঘটায়।

এসময় শিউলী রানী লম্পট রিফাতের হাত থেকে ছাড়া পেয়ে বাড়ির গেইট বন্ধ করে রিফাতকে আটকে রেখে চিৎকার দেয়। বাড়ির ও এলাকার লোকজন ছুটে এসে সেখানে জড়ো হয়। ছেলে রিফাতকে আটকের সংবাদ পেয়ে পিতা এনামুল হকসহ বেশকিছু লোকজন নিয়ে উজ্জলের বাড়িতে যায়।

সেখানে রিফাতকে ছেড়ে নেয়ার চেষ্টা করলে উজ্জলের ছোটভাই আমৃত কুমারের সাথে তর্কবিতর্ক ও ধস্তাধস্তির ঘটনা ঘটে। এক পর্যায়ে উভয় পক্ষের মধ্য সংঘর্ষ বেধে যায়। একপর্যায়ে ঘটনার স্থানেই অমৃত কুমারের মৃত্যু হয়।

পরিবারের দাবী বড় ভাই উজ্জলের স্ত্রী ভাবি শিউলি রানীর শ্লীলতাহানীর প্রতিবাদ করায় রিফাতের বাবা এনামুল হক বুকে আঘাত ও গলা টিপে অমৃত কুমার (২৮)কে হত্যা করা করেছে। ঘটনার পর থেকে এনামুল হক ও তার পরিবারের লোকজন ঘরবাড়ি ছেড়ে পালিয়ে গেছে।

এব্যপারে গাবতলী মডেল থানার ইন্সরপক্টর (ওসি অপরেশন) লাল মিয়ার সাথে কথা বললে তিনি জানান, শ্লীলতাহানির ঘটনায় বুকে ,পিঠে, গলায় আঘাত করে অমৃত কুমার নামে এক যুবক খুন হয়েছে।

সে পারকাঁকড়া ভাঙ্গিরী পাড়া গ্রামের অনিল চন্দ্র’র ছেলে। লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য বগুড়া মর্গে পাঠানো হয়েছে। সিনিয়র সহকারি পুলিশ সুপার গাবতলী সার্কেল সাবিনা ইয়াসমিন ঘটনার স্থল পরিদর্শন করেছেন।

হত্যার ঘটনায় নিহত অমৃত কুমারের বাবা বাদী হয়ে এনামুল হক ও রিফাত পিতা পুত্রকে আসামী করে গাবতলী মডেল থানায় একটি হত্যা মামলা করেছেন।

No comments

Leave a Reply

five × 2 =

সর্বশেষ সংবাদ