Menu

গাবতলীতে রাস্তা কেটে পুকুর খনন করায় ৪০ পরিবার অবরুদ্ধঃ এলাকাবাসীর মানববন্ধন

গাবতলী(বগুড়া) প্রতিনিধি ঃ বগুড়ার গাবতলীতে জনসাধারনের চলাচলের কাঁচা রাস্তা কেটে পুকুর খননের ফলে এলাকার ৪০টি পরিবার অবরুদ্ধ হয়ে পড়েছে। নিরুপায় হয়ে সমাধানের জন্য উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবর লিখিত অভিযোগ দিয়েছে গ্রামবাসী।

নির্বাহী অফিসার ও এ্যাসিল্যান্ড এলাকা পরিদর্শন করেছেন। রাস্তা পুনঃস্থাপনের জন্য নারী পুরুষ মানববন্ধন করেছে। জানাগেছে, গাবতরী উপজেলার নেপালতলী ইউনিয়নের জাতহলিদা দক্ষিন খাঁ পাড়ায় যাতায়াতের কাঁচা রাস্তাটি এলাকার জনৈক আব্দুল মোমিন রাস্তা বন্ধ করে পুকুর খনন করে। ফলে খাঁ পাড়া এলাকার ৪০ টি পরিবারের আর কোন যাতায়াতের রাস্তা না থাকায় অবরুদ্ধ হয়ে পড়ে।

খাঁ পাড়ার লোকজন দাবি করেন, পাশেই সুখদহ নদী, নদীর পারসহ জমি সরকারি খাস। ২৪ মে এলাকাবাসীর পক্ষে মোঃ রাসেল খান বাদী হয়ে গাবতলী উপজেলা নির্বাহি অফিসার বরাবর এ সংক্রান্ত একটি লিখিত অভিযোগ দাখিল করেন।

অভিযোগের প্রেক্ষিতে উপজেলা নির্বাহি কর্মকর্তা মোছাঃ রওনক জাহান ও উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভুমি) মোছাঃ সালমা আক্তার সরজমির এলাকা পরিদর্শন করেন, তারা জানান, রাস্তা সরকারি খাস জায়গায় হলে তা খতিয়ে দেখে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এসময় স্থানীয় নেপালতলী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এস এম লতিফুলবারী মিন্টুসহ এলাকার গন্যমান্য ব্যাক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন। অপরদিকে উক্ত রাস্তা পুনঃবহালের দাবিতে এলাকার নারী ও পুরুষরা মানববন্ধন করেছে।

এব্যপারে পুকুর খননকারী আব্দুল মোমিনের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, আমার কোবলাকৃত জমিতে আমি মাটি উত্তোলন করে নিচু জায়গা ভরাট করেছি। নদীর পার দিয়ে খাস জমিতে রাস্তা রয়েছে। আমার কোবলা জমির মধ্য একটি মহল অযৌতিকভাবে রাস্তা দাবী করে, তা গ্রহন যোগ্য নয়। খা পাড়ার লোকজন অবরুদ্ধ হয়ে পড়ায় তারা ঘর থেকে বের হতে পারছেনা। তাদের আরকোন বিকল্প রাস্তাও নেই।

বিষয়টি দ্রুত সমাধানের জন্য অবরুদ্ধ গ্রামবাসী উপজেলা প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

 

No comments

Leave a Reply

11 + six =

সর্বশেষ সংবাদ