Menu

গাবতলীতে সরকারী চাল উত্তোলন না করেই কালো বাজারের নিম্নমানের ভিজিডি’র চাল দুস্থদেরকে বিতরণের অভিযোগ

সোনাতলা সংবাদ ডটকম (বগুড়া প্রতিনিধি): বগুড়া গাবতলীর রামেশ্বরপুর ইউনিয়ন পরিষদে সরকারীভাবে বরাদ্দকৃত ভিজিডি’র চাল উত্তোলন না করেই কালোবাজারের নি¤œমানের চাল দুস্থদের মাঝে বিতরণ করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। ঘটনাটি নিয়ে এলাকায় ব্যাপক তোলপাড় সৃষ্টি হয়েছে।
জানা গেছে, গত ২৭মে রামেশ্বরপুর ইউনিয়ন পরিষদে ২’শ ৩জন ভিজিডি কার্ডধারীদের মাঝে জনপ্রতি ৩০কেজি করে চাল বিতরণ করেন ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান সেকেন্দার আলী। কিন্তু এ চালগুলো পার্শ্ববর্তী সরকারী সাবেকপাড়া খাদ্যগুদাম থেকে উত্তোলণ করে বিতরণের নিয়ম থাকলেও গতকাল ৩০ মে সন্ধ্যায় এ রির্পোট লেখা পর্যন্ত ওই গুদাম থেকে উত্তোলন করা হয়নি। এখন এলাকাবাসীর মধ্য প্রশ্ন উঠেছে খাদ্য গুদাম থেকে যদি চাল উত্তোলণই না করা হয় তাহলে এই চাল কোথায় থেকে এলো? এ ব্যাপারে সাবেকপাড়া খাদ্যগুদামের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা গাজী মোঃ শফিকুল ইসলামের সঙ্গে কথা বললে তিনি জানান, রামেশ্বরপুর ইউনিয়ন পরিষদের ভিজিডি’র চাল এখন পর্যন্ত উত্তোলণ করা হয়নি। তিনি আরও জানান, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান রফি নেওয়াজ খান রবিন অজ্ঞাত কারণে এখন ওই চালগুলো দিতে নিষেধ করেছেন। ওই ইউপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান সেকেন্দার আলীর সঙ্গে কথা বললে তিনি বলেন, আমি চালগুলো উত্তোলন করার জন্য পরিষদের মেম্বার এমদাদুল হককে দায়িত্ব দেয়া হয়েছিল। কিন্তু অজ্ঞাত কারণে এমদাদুল হক খাদ্য গুদাম থেকে চাল উত্তোলন না করে অন্য কোথাও থেকে এনে দিলে তা বিতরণ করা হয়েছে। ফলে ঘটনাটি নিয়ে এখন সমস্যার সৃষ্টি হয়েছে। তবে প্রয়োজনে ক্ষতিপূরণ সরুপ আবারও ওই চাল উত্তোলন করে বিতরণ করা হবে।

No comments

Leave a Reply

four × 3 =

সর্বশেষ সংবাদ