Menu

গাবতলী শহীদ জিয়া মডেল কলেজের বহিস্কৃত অধ্যক্ষ অর্থ আত্মসাত মামলায় মাহাতাব কারাগারে

সোনাতলা সংবাদ ডটকম (বগুড়া প্রতিনিধি): অর্থ আত্মসাত মামলায় বগুড়ার গাবতলী শহীদ জিয়া মডেল কলেজের বহিস্কৃত অধ্যক্ষ মাহাতাব উদ্দিন আদালত কর্তৃক কাস্টরি হয়েছে। গতকাল সোমবার আদালতে হাজিরা দিলে শুনানী শেষে বিচারক তাঁকে জেল হাজতে প্রেরণের নির্দেশ দেন।
জানা গেছে, গাবতলী শহীদ জিয়া মডেল কলেজের তৎকালীন সভাপতি এএইচ আজম খান বাদী হয়ে অর্থ আত্মসাত ও বিভিন্ন অনিয়মের অভিযোগ এনে ২০১৮ সালের ২৫ফেব্রুয়ারী ওই কলেজের তৎকালীন সভাপতি মমি আক্তার ও অধ্যক্ষ মাহাতাব উদ্দিনকে অভিযুক্ত করে বগুড়া চীপ জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে মামলা দায়ের করেন। যার মামলা নং-৫৯/সি/গাবঃ। মামলার তদন্ত করে প্রতিবেদন জমা দেয়ার জন্য গাবতলীর ইউএনওকে নির্দেশ দেন আদালত। নির্দেশ মোতাবেক গত বছরের ৪নভেম্বর তৎকালীন ইউএনও তদন্ত প্রতিবেদন জমা দেন আদালতে। তদন্ত প্রতিবেদন সন্তোষজনক না হওয়ায় নারাজি দাখিল করেন বাদী পক্ষ। এরই প্রেক্ষিতে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে গতকাল ১১ফেব্রুয়ারী আদালতে হাজির হওয়ার জন্য সমনজারি করেন আদালত। সমনজারিমূলে আদালতে হাজির হয়ে জামিন আবেদন করলে আদালত মামলার শুনানী শেষে তৎকালীন সভাপতি মমি আক্তারের মুঞ্জুর করে এবং বহিস্কৃত অধ্যক্ষ মাহাতাব উদ্দিনের জামিন আবেদন নামুঞ্জুর করে কারাগারে প্রেরণের নির্দেশ দেন বিচারক। বাদী পক্ষের আইনজীবি ছিলেন এ্যাডভোকেট হাবিবুজ্জামান হ্যাপি। দিকে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কলেজের একাধিক শিক্ষক জানান, বহিস্কৃত অধ্যক্ষ মাহাতাব উদ্দিন কলেজের অর্থ আত্মসাতসহ বিভিন্ন অনিয়মে জড়িত ছিল। কলেজের লাখ লাখ টাকা ব্যাংক থেকে উত্তোলন করে তিনি আত্মসাত করেছেন। এছাড়াও কলেজের এডহক কমিটি না হওয়ার জন্য বগুড়া জজ কোর্টে মামলাও করেছেন। এ ব্যাপারে শহীদ জিয়া মডেল কলেজের বর্তমান অধ্যক্ষ (ভারপ্রাপ্ত) জান্নাতুল ফেরদৌসি বেগম বলেন, মাহাতাব উদ্দিনের বিরুদ্ধে অর্থ আত্মসাত ও বিভিন্ন অনিয়মের অভিযোগে দায়েরকৃত মামলায় আদালত তাঁকে জেল হাজতে প্রেরণ করেছে বলে শুনেছি।

No comments

Leave a Reply

13 − eight =

সর্বশেষ সংবাদ