Menu

গোবিন্দগঞ্জের শালমারায় মুক্তিযোদ্ধার নির্মাণাধীন বাড়িতে কাজে বাঁধা ও হামলার অভিযোগ

সোনাতলা সংবাদ ডটক (লতিফুল ইসলাম, সোনাতলা): গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার শালমারা গ্রামে তুচ্ছ ঘটনায় বীরমুক্তিযোদ্ধা আব্দুস সামাদের বাড়িতে হামলার অভিযোগ উঠেছে। নির্মাণাধীন দ্বিতল বাড়ির প্লাস্টারে পানি দেওয়ার সময় সেই পানির ছিটা পার্শ্ববর্তী বাড়িতে যাওয়ায় এ হামলার ঘটনা ঘটেছে। রাতেই ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন গোবিন্দগঞ্জ থানার এসআই মোবারক হোসেন।

বীরমুক্তিযোদ্ধা আব্দুস সামাদ জানান, ‘আমার দ্বিতল বাড়ি করায় ঈর্ষান্বিত হয়ে পার্শ্ববর্তী আব্দুল হামিদের ছেলে সুফি, আমু,সুফির ছেলে সামিরুল ও আমুর ছেলে তাব্বাদ দীর্ঘদিন নির্মাণ কাজ বাঁধাগ্রস্ত করতে নানাভাবে চেষ্টা করে আসছে।

১১ অক্টোবর, রোববার রাতে প্লাস্টারে পানি দেওয়ার সময় সামান্য পানি যাওয়াকে বাহানা হিসেবে নিয়ে তারা লাঠিসোটা দিয়ে নির্মিত স্থাপনা ভেঙে দেয়ার চেষ্টা করে, লাঠিসোটা ও ইটপাটকেল নিক্ষেপ করে চরম আতঙ্ক তৈরি করে।

তাদের নিক্ষেপ করা ইটের আঘাতে আমার ছেলে শরিফুল ইসলাম (বাবু) আহত হয়। এ সময় তারা আমার ছেলেসহ আমাদের প্রাণনাশের হুমকি প্রদান করে। বর্তমানে তাদের ভয়ে আমরা আতঙ্কিত অবস্থায় রয়েছি। যেকোন সময় তারা বড় ধরণের দুর্ঘটনা ঘটাতে পারে।’

এব্যাপারে অভিযুক্ত সুফির স্ত্রী জামিলা বেগম জানান,‘প্রতিদিন বাড়িতে পানি আসার ঘটনায় উভয়পক্ষে ঢিল ছোড়ার ঘটনা ঘটেছে।’

ঘটনাস্থল পরিদর্শনকারী গোবিন্দগঞ্জ থানার এসআই মোবারক হোসেন জানান, ‘শালমারায় বীরমুক্তিযোদ্ধা আব্দুস সামাদের বাড়িতে হামলা হয়েছে মর্মে ৯৯৯ নম্বরে একটি ফোন পেয়ে রোববার রাতে আমি ঘটনাস্থলে যাই। এ ব্যাপারে তদন্ত চলমান রয়েছে।’ এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত মামলার প্রস্তুতি চলছিল।

No comments

Leave a Reply

5 × 2 =

সর্বশেষ সংবাদ