Menu

পাকা সড়কে রেইনড্রেন: হুমকির মুখে সড়ক, দুর্ভোগে পথচারীরা

আবু হানিফ মোঃ বায়েজিদ (গাইবান্ধা জেলা প্রতিনিধি) :গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জে পাকা সড়কে রেইনড্রেন সৃষ্টি হওয়ায় ধ্বসে যাচ্ছে সড়কের অংশ। এতে হুমকির মুখে সড়ক ও সেইসাথে চরম দুর্ভোগে পড়েছেন পথচারীসহ যানবাহন চালকরা। যেকোনো মুহুর্তে সম্পূর্ণ সড়ক ধ্বসে যেতে পারে বলে ধারণা করছেন ভুক্তভোগী এলাকাবাসী। উপজেলার বামনডাঙ্গা ইউনিয়নের বামনডাঙ্গা বন্দর থেকে নগর কাটগড়া হাট পর্যন্ত পাকা সড়কে এ অবস্থা সৃষ্টি হয়েছে। সড়কটি ঘাঘট নদীর ব্রীজ দিয়ে মিঠাপুকুর উপজেলা হয়ে রংপুর শহর যাতায়াতের অন্যতম যোগাযোগ মাধ্যম। এ উপজেলার ১৫ টি ইউনিয়নের মধ্যে ৭টি ইউনিয়নের মানুষ এ রাস্তা দিয়ে রংপুর যাতায়াত করে। এ বছরের প্রথম বন্যায় ঐতিহ্যবাহী নগর কাটগড়া হাটের পাশেই পাকা রাস্তাটির পাশ ধ্বসে খাদের সৃষ্টি হয়। যা জরুরী ভিত্তিতে মেরামত করার কথা থাকলেও এখনো হয়নি। যার কারণে মালবাহী যানবাহন চলাচল খুব ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে পড়েছে। এরপর টানা ভারী বর্ষনে আরো ক্ষতিগ্রস্ত হয়ে রাস্তাটি যানবাহন চলাচলের অযোগ্য হয়ে পড়েছে।

এ রাস্তা দিয়ে প্রতিদিন শত শত যানবাহন চলাচল করলেও এখন তা তিন কিলোমিটার ঘুরে যাতায়াত করছে। এ রাস্তা দিয়ে বামনডাঙ্গা ডিগ্রী কলেজ কাটগড়া উচ্চ বিদ্যালয় ও প্রাথমিক বিদ্যালয়, বামনডাঙ্গা শিশু নিকেতন, রুপসী বাংলা বিদ্যাপীঠ, মেধা বিকাশ শিক্ষালয়ের কয়েক হাজার শিক্ষার্থী ঝুঁকি নিয়ে চলাচল করছে।

শিক্ষার্থী শিউলী বলেন, শুধু রাস্তা নয় কয়েকটি বাড়িও হুমকির মুখে রয়েছে। আবার বন্যা এলে বাড়ি ও রাস্তা ধ্বসে যাওয়ার আশঙ্কা রয়েছে। শিক্ষার্থী রাকিব জানান, খানা খন্দে ভরা রাস্তা দিয়ে চলাচল ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে পড়েছে। কাটগড়া উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ইউনুস আলী প্রমাণিক জানান, রাস্তাটি বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত হলে তাৎক্ষণিকভবে উপজেলা প্রশাসনকে অবহিত করা হয়। এরপর ইউএনও সরেজমিন পরিদর্শন করে দ্রুত মেরামতের আশ্বাস দেন। ইতোমধ্যে ইউএনও ইউপি চেয়ারম্যানকে মেরামতের জন্য বলেন।

বামনডাঙ্গা ইউপি চেয়ারম্যান নজমুল হুদা জানান, পানির জন্য কাজ করতে পারছি না। কারণ রাস্তা রক্ষার্থে প্যালাসাইডিং দিতে হবে।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ সোলেমান আলী জানান, চেয়াম্যানের আওতায় রাস্তাটি মেরামতের জন্য তাকে বলা হয়েছে।

No comments

Leave a Reply

6 − 3 =

সর্বশেষ সংবাদ