Menu

বগুড়ার-১ আসনের কে পাচ্ছেন ধানের শীষ প্রতীক!

পাভেল মিয়া: সারিয়াকান্দি (বগুড়া) প্রতিনিধিঃ বগুড়া-১ (সারিয়াকান্দি-সোনাতলা) আসনের সংসদ সদস্য আব্দুল মান্নানের মৃত্যুতে আসনটি এখন শূন্য। এখানকার সম্ভাব্য প্রার্থী ও তাদের সমর্থকরা শুরু করে দিয়েছেন নির্বাচনী তোড়জোড়। সম্ভাব্য প্রার্থী নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বিভিন্ন দলের নেতাকর্মীরা তাদের মতামত তুলে ধরে স্ট্যাটাস দিচ্ছেন। চলছে প্রচার প্রচারণা ও চুলচেরা বিশ্নেষণ।

 

সারিয়াকান্দি উপজেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি ও সাবেক উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান সাবেক ছাত্রনেতা মাছুদুর রহমান হিরু মন্ডল, বগুড়া জেলা বিএনপির সদস্য ও সোনাতলা উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান এ কে এম আহসানুল তৈয়ব জাকির, সাবেক সংসদ সদস্য কাজী রফিকুল ইসলাম, জেলা জাতীয়তাবাদী ফোরামের সভাপতি ও জিয়া শিশু-কিশোর সংগঠনের কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক ও মোশারফ হোসেন চৌধুরী।

 

এ আসনের সাধারণ ভোটার ও দলীয় নেতা কর্মীরা তাকিয়ে আছে কে পাচ্ছেন ধানের শীষ প্রতীক।এ নিয়ে প্রতিটি চা দোকানে ও হাট বাজারে সাধারণ মানুষের মুখে মুখে আলোচনার গুঞ্জন শোনা যাচ্ছে।

 

স্থানীয় বিএনপি’র সমর্থিতরা জানান, দল যাকে মনোয়ন দিবে তার জন্য কাজ করে ধানের শীষের বিজয় নিশ্চিত করবো। তবে আমরা আশা করবো যারা প্রথম থেকে দলের দূর্দিনে, বিপদে আপদে পাশে থাকবে এবং সারিয়াকান্দি সোনাতলা জনগনের পাশে থেকে এলাকার জন্য কাজ করবে, এমন প্রার্থীকে মনোনয়ন দেওয়া উচিত বলে আমরা মনে করি। তাহলে বগুড়ার -১ আসনটি উদ্ধার করা সম্ভব হবে।

 

উপজেলার বিএনপি’র সাবেক সাধারণ সম্পাদক আমিরুল মোমিন পিন্টু বলেন, সারিয়াকান্দি-সোনাতলা মাটি, বিএনপি’র ঘাটি। এ এলাকার মানুষ বিএনপিকে ভালবাসে। আমার বিশ্বাস সারিয়াকান্দি উপজেলা চেয়ারম্যান মাছুদুর রহমান হিরু মন্ডল যেহেতু এলাকায় থেকে তূণমূল নেতাকর্মীদের সাথে যোগাযোগ রাখেন এবং তাদের বিপদের পাশে দাড়ান, তাকে মনোনয়ন দিলে দুই উপজেলা ভোটারা বিপুল ভোট ধানের শীষ প্রতীকে বিজয় লাভ করবে।

 

উপজেলা বিএনপি’র সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক সিরাজুল ইসলাম জানান, মাছুদুর রহমান হিরু মন্ডল দুুর্দিনে আমাদের পাশে থেকে দলকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য সার্বিক সহযোগীতা করে যাচ্ছেন। (সারিয়াকান্দি- সোনাতলা ) এ আসনের তাকে মনোনয়ন দেওয়ার জন্য দাবী করছি। তিনি ক্ষোপের সাথে আরো বলেন, সংস্কারবাদী সাবেক এমপি রফিকুল ইসলাম কে দুই উপজেলার মানুষ অবাঞ্চিত ঘোষণা করেছে। তিনি একজন বসন্তের কোকিল। তাকে দলীয় কোনো কর্মসূচী ও আন্দোলনে দেখা যায় না। আমাদের প্রিয় নেতা মাছুদুর রহমান হিরু মন্ডল কে মনোনয়ন দেওয়া হলে বিজয় শতভাগ সুনিশ্চিত।

 

এ বিষয়ে- বগুড়া জেলা জাতীয়তাবাদী আইনজীবি ফোরামের সদস্য এ্যাডভোকেট শরিফুল ইসলাম হিরার সাথে কথা হলে তিনি এই প্রতিবেদককে জানান, বগুড়া-১ আসনটি একসময় দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার অন্যতম হাতিয়ার হিসেবে কাজ করেছে। এ আসনটি পুনরুদ্ধারের জন্য এমন এক জন শক্তিশালী এবং সৎ নির্ভীক মানুষের দরকার, যে সবসময় সারিয়াকান্দি ও সোনাতলা মানুষের পাশে থাকবে।

 

এছাড়াও কেন্দ্র নেতাদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, তারা টাকা পয়সা কেন্দ্র করে এই যে আমাদের আসনগুলো হাতছাড়া করতেছে, তারা ব্যবসা বাণিজ্য করতেছে তাদের এই জিনিসটা পরিহার করে এবার সবাই মিলে একসাথে এসে বগুড়া-১ আসন রক্ষা করতে হবে। তার জন্য মাঠের নেতাকে দিতে হবে, যারা দীর্ঘদিন বিএনপি’র সাথে জড়িত এবং রাজপথে ত্যাগী ও পরীক্ষিত নেতা সবসময় বিপদে-আপদে মানুষের কাছে এবং পাশে থাকে। তাই আমি মনে করি, আমাদের প্রিয় নেতা মাছুদুর রহমান হিরু মন্ডল কে মনোনয়ন দেওয়া হলে বিজয় শতভাগ সুনিশ্চিত।

 

বগুড়া-১ আসনে মোট ভোটার সংখা ৩ লাখ ৮ হাজার ৯শ ২জন। এর মধ্যে সারিয়াকান্দি উপজেলার ভোটার সংখ্যা ১লাখ ৬৭ হাজার ৭৮২ জন এবং সোনাতলা উপজেলার ভোটার সংখ্যা ১ লাখ ৪১ হাজার ১২০ জন।

No comments

Leave a Reply

ten − two =

সর্বশেষ সংবাদ