Menu

বগুড়া-তরনীরহাট সড়কে অবশেষে এলজিইডি’র অংশ ৩কোটি ৮৯লাখ টাকা ব্যয়ে কাজ শুরু হচ্ছে

মুহাম্মাদ আবু মুসা: বগুড়া-গোলাবাড়ী তরনীরহাট সড়কে পাকা কার্পেটিং উঠে গিয়ে অসংখ্য স্থানে ছোট বড় গর্তে সৃষ্টি হওয়ায় এ সংক্রান্ত ছবিসহ ফলাও করে সংবাদ প্রকাশিত হয়েছে। ফলে বিষয়টি সংশ্লিষ্ঠ কর্তৃপক্ষের নজরে আসে। ফলে ওই সড়কের স্থানীয় সরকার প্রকৌশলী অধিদপ্তরের (এলজিইডি) আওতায় ৭কিলো মিটার সংস্কার বা মেরামত (পাকা কার্পেটিং) কাজ করার জন্য অনুমোদন দেয়া হয়েছে।

গত ৩১আগষ্ট/২১ বগুড়া-গোলাবাড়ী তরনীরহাট সড়কের এলজিইডি’র অংশের কাজের অনুমোদন দেয়া হয়। ওই সড়কে প্রায় ৭কিলো মিটার সংস্কার কাজের অর্থ বরাদ্দ হয়েছে ৩কোটি ৮৮লাখ ৮০হাজার ৪শত ৫৬টাকা। যা চলতি মাসেই পুনঃনির্মাণ কাজের জন্য দরপত্র বিজ্ঞপ্তি দেয়া হবে বলে সংশ্লিষ্ঠ সূত্র জানিয়েছে।

বগুড়া-গোলাবাড়ী তরনীরহাট সড়কটি প্রায় ২০কিলো মিটার। এর মধ্যে রয়েছে স্থানীয় সরকার প্রকৌশলী অধিদপ্তরের (এলজিইডি), সড়ক ও জনপথ (সওজ) এবং বগুড়া পৌরসভার আওতায়। সাবগ্রাম বাইপাস পৌরসভার সিমানা শেষে গাবতলী পাকার মাথা পাচমাইল এর সন্নিকট পর্যন্ত প্রায় ৫কিলো মিটার সড়ক রয়েছে স্থানীয় সরকার প্রকৌশলী অধিদপ্তরের (এলজিইডি) আওতায়।

এর মধ্যে দেড় কিলো মিটার পর্যন্ত কিছু দিন আগে কাজ করা হলে বাকী অংশ সাড়ে ৩কিলো মিটার (৩৫০০মিটার) ২কোটি ৪১লাখ ৫৮হাজার ৫শত ৮৮টাকা ব্যয়ে সংস্কার কাজ অচিরেই শুরু করা হচ্ছে। এ ছাড়া ওই সড়কে বালিয়াদিঘী থেকে তরনীরহাট পর্যন্ত সোয়া ৩কিলো মিটারের একটু বেশী (৩১৭৫মিটার) ১কোটি ৪৭লাখ ২১হাজার ৬শত ৬৮টাকা ব্যয়ে সংস্কার কাজ অচিরেই শুরু করা হচ্ছে।

এই নিয়ে বগুড়া-গোলাবাড়ী তরনীরহাট সড়কে এলজিইডি’র আওতায় প্রায় ৭কিলো মিটার সংস্কার বা মেরামত (পাকা কার্পেটিং) কাজ করার অনুমোদন হওয়ার মধ্যে দিয়ে ওই সড়কের এলজিইডি অংশের সম্পূর্ণ কাজ শেষ হবে। তবে সড়ক ও জনপথ (সওজ) এবং বগুড়া পৌরসভার আওতায় ওই সড়কে এখনো তেমন কোন সুখবর পাওয়া যায়নি।

সড়ক ও জনপথ (সওজ) এর আওতাধীন পাকা কার্পেটিং উঠে গিয়ে অসংখ্য স্থানে ছোট বড় গর্তে সৃষ্টি হওয়ায় স্থান গুলোতে মেরামত করা হচ্ছে।

এ ব্যাপারে বগুড়া স্থানীয় সরকার প্রকৌশলী অধিদপ্তরের (এলজিইডি) নির্বাহী প্রকৌশলী গোলাম মোর্শেদ এর সাথে কথা বললে তিনি উপরোক্ত তথ্য নিশ্চিত করে বলেন, ওই পাকা সড়কটির আমাদের অংশের অর্থাৎ এলজিইডি’র আর খারাপ সড়ক থাকছে না।

তিনি আরো বলেন, আগে কিছু কাজ হয়েছিল, বাকী ২অংশ পুনঃনির্মাণ কাজ করার জন্য গত ৩১আগষ্ট/২১ অনুমোদন হয়েছে। যার ব্যয় ধরা হয়েছে ৩কোটি ৮৮লাখ ৮০হাজার ৪শত ৫৬টাকা। অর্থাৎ সাবগ্রাম বাইপাস পৌরসভার সিমানা শেষে গাবতলীর লাঠিগঞ্জ এর সন্নিকট পর্যন্ত সাড়ে ৩কিলো মিটার (৩৫০০মিটার) ২কোটি ৪১লাখ ৫৮হাজার ৫শত ৮৮টাকা এবং গাবতলীর বালিয়াদিঘী থেকে তরনীরহাট পর্যন্ত সোয়া ৩কিলো মিটারের একটু বেশী (৩১৭৫মিটার) ১কোটি ৪৭লাখ ২১হাজার ৬শত ৬৮টাকা ব্যয়ে চলতি মাসেই পুনঃনির্মাণ কাজের জন্য দরপত্র বিজ্ঞপ্তি প্রকাশের পর ঠিকাদার নিয়োগ করে সংস্কার কাজ অচিরেই শুরু করা হবে ইনশাআল্লাহ।

স্থানীয় সরকার প্রকৌশলী অধিদপ্তরের (এলজিইডি) গাবতলী উপজেলা প্রকৌশলী রিপন কুমার সাহা জানান, অনুমোদন হওয়া কাজটি বগুড়া স্থানীয় সরকার প্রকৌশলী অধিদপ্তরের (এলজিইডি) টেন্ডার দিয়ে ঠিকাদার নিয়োগ করাসহ সার্বিক দায়িত্বে রয়েছে। তবে আমরা দেখা শুনা করবো।

বগুড়া সড়ক ও জনপথ (সওজ) এর নির্বাহী প্রকৌশলী মোঃ আসাদুজ্জামান এর সাথে কথা বললে তিনি জানান, ওই সড়কটি আমাদের সওজ এবং এলজিইডি’র যৌথভাবে রয়েছে। আমাদের অংশ যে গুলো স্থানে ছোট বড় গর্তের সৃষ্টি হয়েছে সেই স্থান গুলোতে আপাতত মেরামত করা হয়েছে বা হচ্ছে। তবে সংস্কার বা পুনঃনির্মাণ করার জন্য উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের নিকট বরাদ্দ চেয়ে আবেদন করা হয়েছে। আশা করা হচ্ছে অল্প দিনের মধ্যে ওই সড়ক পুনঃনির্মাণ কাজের অনুমোদন বা বরাদ্দ পাওয়া যাবে ইনশাআল্লাহ।

এ দিকে ওই সড়কের এলজিইডি’র অংশ প্রায় ৭কিলো মিটার সংস্কার কাজের অনুমোদন এবং ৩কোটি ৮৮লাখ ৮০হাজার ৪শত ৫৬টাকা বরাদ্দ হওয়ায় এলজিইডি ও পত্রিকার কর্তৃপক্ষকে সাধুবাদ জানিয়েছেন গাবতলী সদর ইউপি চেয়ারম্যান আলমগীর হোসাইন খাঁন, মহিষাবান ইউপি চেয়ারম্যান আলহাজ¦ আমিনুল ইসলাম, বালিয়াদিঘী ইউপি চেয়ারম্যান মাহবুবুর রহমান, এলাকার লুৎফর রহমান সরকার স্বপন, আব্দুর রহিম মোল্লা, আব্দুল মজিদ মন্ডল, আরিফুল ইসলাম, নাজমা বেগম, সুলতান মাহমুদ, শাহনেওয়াজ জাকি, হাবিবুর রহমান রিপনসহ ব্যবসায়ী মহল, শ্রমিক ছাড়াও বিভিন্ন শ্রেনী পেশার অনেকে।

No comments

Leave a Reply

2 × four =

সর্বশেষ সংবাদ