Menu

ভারতে সেতারা বানুর কিচ্ছা মঞ্চায়নঃ কাহালু থিয়েটারের অভিনেতা ও কলাকুশলীরা সংবর্ধিত

সোনাতলা সংবাদ ডটকম (মুনসুর রহমান তানসেন, কাহালু): স¤প্রতি ভারতের পশ্চিমবঙ্গের গাজোল বিশাণ একটি নাট্য সংস্থার আমন্ত্রনে তাদের বিষাণ নাট্যমেলায় কাহালু থিয়েটার সেতারা বানুর কিচ্ছা নাটকের সফল মঞ্চায়ন করা হয়েছে।

আব্দুল হান্নানের নির্দেশনায় ও শাহাজাদ আলী বাদশা রচিত নাটকটি দেখার পর সেখানকার দর্শকরা মুগ্ধ হয়ে কাহালু থিয়েটারের সকল কলাকুশলীদের বিভিন্ন মহল থেকে সংবর্ধনা দেওয়াসহ শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানানো হয়েছে।

গত ২৩ ডিসেম্বর কাহালু থিয়েটারের ১২ জনের একটি দল নাটক করতে যান গাজোলে। সেখানে যাওয়ার আগ মুহুর্তেই প্রস্তত ছিলেন বিশাণের চৌকস কর্মিরা। বাংলাদেশ বর্ডার ক্রোস করার পরই চেকপোস্টেই বিশাণের কর্মিরা কাহালু থিয়েটারের সকলকে স্বাগত জানিয়ে তাদের নাট্যমেলায় নিয়ে যান।

বিশাণের ৬ দিনব্যাপী নাট্যমেলায় ৫ম দিনে ২৪ ডিসেম্বর কাহালু থিয়েটার মঞ্চায়ন করে সেতারা বানুর কিচ্ছা নাটক। নাটকটি দেখার পর ২৫ ডিসেম্বর সকাল ১০ টায় গাজোল শ্যামসুখী শিক্ষা নিকেতনে কাহালু থিয়েটারের নাট্য অভিনেতা ও সকল কলাকুশলীকে ওই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে সংবর্ধনা দেয়। সংবর্ধনা শেষে সেখানে শিক্ষক/শিক্ষার্থীসহ এপার বাংলা ওপার বাংলার উপস্থিত সকলে মিলে দুই দেশেরই জাতীয় সংগীত গাইলেন। সেখানে আমন্ত্রিত অতিথি কাহালু থিয়েটারের সকলকে খুব ভালোভাবে আপ্যায়ন করা হয়।

সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন শ্যামসুখী বালিকা শিক্ষা নিকেতনের সভাপতি শ্রী জয়ন্ত কুমার ঘোষসহ ওই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক/শিক্ষার্থী। ওইদিন বিকেলে গাজোল গ্রাম পঞ্চায়েত কতৃপক্ষের পক্ষ থেকে কাহালু থিয়েটারের সকলকে সংবর্ধনা দেওয়া হয়।

সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন গাজোল গ্রাম পঞ্চায়েত প্রধান বিন্দু পুজার মাল, উপ-প্রধান কাজল কুন্ডুসহ অন্যান্য জনপ্রতিনিধি ও গ্রাম পঞ্চায়েতের কর্মকর্তা/কর্মচারী বৃন্দ। সন্ধ্যায় গাজোল খেলার সাথী ক্লাবে কাহালু থিয়েটারের সকলকে শুভেচ্ছা জানান, ওই ক্লাবের সদস্য বৃন্দ।

সেখানে উপস্থিত ছিলেন মালদাহ জেলা পরিষদের সভাধিপতিসহ খেলার সাথী ক্লাবের সকলে। রাতে বিষাণ নাট্যমঞ্চে সেখানকার এমপি খগেন মূর্মু কাহালু থিয়েটারের নাট্য শিল্পীদের সাথে শুভেচ্ছা বিনিময় করেন।

পরদিন সকালে সেখানকার একটি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পক্ষ থেকেও কাহালু থিয়েটারের শিল্পীদের সংবর্ধনা দেওয়া হয়। সংবর্ধনা শেষে বিষাদের সুরে বিশাণের পক্ষ থেকে কাহালু থিয়েটারের শিল্পীদের বিদায় সংবর্ধনা দেওয়া হয়। বিদায় পর্বে সেখানে এক আবেগঘন পরিবেশের সৃষ্টি হয়।

২৩ ডিসেম্বর থেকে ২৬ ডিসেম্বর পর্যন্ত গাজোলে অবস্থানকালে বিশান একটি নাট্য সংস্থার সভাপতি তাপস ব্যানার্জী, সেক্রেটারী গদাধরসহ বিশাণের সকলে কাহালু থিয়েটারের শিল্পীদের আপ্যায়নসহ বিভিন্ন বিষয়ে কোনো ধরনের ঘারতি রাখেননি। বিশানের প্রতিটি লোকজনের ভালোভাসায় সিক্ত হয়ে অবশেষে ঘরে ফিরলেন কাহালু থিয়েটারের নাট্য শিল্পীরা।

No comments

Leave a Reply

3 × 3 =

সর্বশেষ সংবাদ