Menu

মহাস্থানে স্ত্রীর মিথ্যা মামলা ও মানষিক নির্যাতন থেকে রক্ষা পেতে স্বামীর সাংবাদিক সম্মেলন

সোনাতলা সংবাদ ডটকম (গোলাম রব্বানী শিপন, মহাস্থান বগুড়া): স্ত্রী’র মিথ্যা হয়রানী মূলক মামলা ও মানষিক নির্যাতন থেকে রক্ষা পেতে চায় ভুক্তভোগী রাশেদুল ইসলাম।

শনিবার দুপুরে বগুড়ার শিবগঞ্জ উপজেলার মহাস্থান প্রেস ক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে সদর উপজেলার রোকনগাড়ী গ্রামের মৃত শুকুর আলীর পুত্র রাশেদুল ইসলাম লিখিত বক্তব্যে উপরোক্ত কথা গুলো উল্লেখ্য করেছেন।

বক্তব্যে তিনি বলেন, আমি শিবগঞ্জ উপজেলার পলিপাড়া গ্রামের আজিজের কনা আফরিন আক্তার রাখিকে গত ২০০৬ ইং সালে ৮০ হাজার ১০১ টাকা দেন মোহরানা ধার্য করে বিবাহ করি। বিবাহের পর আমাদের ঘরে জন্ম গ্রহণ করে পর পর ২টি কন্যা ও ১ পুত্র সন্তানের জন্ম হয়। স্ত্রী ও সন্তানদের নিয়ে সংসার ভালই কাটছিল।

কিন্তু দুঃখজনক হলেও সত্য যে, তার বাবা মার কু-পরামর্শে মাঝে মধ্যেই তুচ্ছ বিষয়কে কেন্দ্র করে সে আমার সাথে অশালিন আচরণ ও গালিগালাজ করে। তার অকথ্য আচরণে অতিষ্ট হয়ে আমি ও আমার পরিবারের লোকজন স্ত্রী’র পরিবারের লোকজন নিয়ে ২১/৪/১৭ ইং তারিখে দেনদরবার শেষে তাদের দাবিকৃত দেন মোহরনা ও তিন মাসের খোরপোষ সহ ১ লক্ষ ২০ হাজার টাকা পরিশোধ করিয়া আপোষ তালাক করা হয়।

এর বেশ কয়েক মাস পর আমার ছেলে- মেয়েদের কথা চিন্তা করে আবারও ২ লক্ষ টাকা মোহরানা করে তাকে পুনরায় স্ত্রীর মর্যাদা দিয়ে বিবাহ করে বাড়ীতে নিয়ে আসা হয়। বিয়ের কিছুদিন যেতে না যেতেই সে আবারো পুর্বের ন্যায় আচরণ করে জানুয়ারী ২০১৯ ইং তারিখে বাবার বাড়ী চলে যায় এবং নিজে নিজের ক্ষতি সাধন করে হাসপাতালে ভর্তি হয়ে আমাকে বিভিন্ন প্রকার মিথ্যা মামলা দিয়ে খুন জখম ও জেল খাটাবে বলে হুমকি দেয়।

এব্যাপারে ২১/৯/১৯ ইং তারিখে বগুড়া সদর থানায় ১৪৩৯ নং একটি সাধারণ ডায়েরী করি। এ বিষয়টি গুরুত্ব সহকারে বিবেচনা করে তার সড়যন্ত্র ও বিভিন্ন মিথ্যা মামলা থেকে রক্ষা পাবার জন্য তিনি পুলিশ প্রশাসন ও সংশ্লিষ্ট প্রশাসের নিকট আকুল আবেদন জানান।

No comments

Leave a Reply

eighteen − 3 =

সর্বশেষ সংবাদ