Menu

মহাস্থান মাজার মসজিদে শিবগঞ্জ বিএনপির আয়োজনে কোকোর ৫ম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে দোয়া মাহফিল

সোনাতলা সংবাদ ডটকম (গোলাম রব্বানী শিপন, মহাস্থান প্রতিনিধি): বগুড়ার শিবগঞ্জ উপজেলা বিএনপির আয়োজনে মহাস্থান হযরত শাহ সুলতান মাজার মসজিদে শহীদ জিয়াউর রহমান ও খালেদা জিয়ার ২য় পুত্র মরহুম আরাফাত রহমান কোকোর ৫ম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে।

যুবদলের সভাপতি ও উপজেলা বিএনপির আহবায়ক কমিটির অন্যতম সদস্য শফিকুল ইসলাম শাহীন এর সভাপতিত্বে, প্রধান অতিথি হিসেবে (ড্যাব) এর কেন্দ্রীয় সদস্য উপজেলা আহবায়ক কমিটির অন্যতম ডাঃ আশিক মাহমুদ ইকবাল স্বাধীন বলেন, আরাফাত রহমান কোকো শহীদ জিয়াউর রহমান ও বেগম খালেদা জিয়ার সন্তান হয়েও তিনি ছিলেন সাদাসিধে জীবন যাপনে অভ্যস্থ।

তিনি অত্যন্ত বিনয়ী, প্রচারবিমূখ এবং নিরহংকারী ব্যক্তি ছিলেন। রাজনৈতিক পরিবারে তার জন্ম হলেও তিনি রাজনীতিক হিসেবে নয় একজন ব্যবসায়ী ও ক্রীড়া সংগঠক হিসাবে বেশী পরিচিত ছিলেন। ক্রিকেটপ্রেমী হিসেবে ক্রিকেটের উন্নয়নে ছুটে বেড়িয়েছেন শহর থেকে গ্রাম- গঞ্জে। ক্রিকেট বোর্ডেও উপদেষ্টা হিসেবে তিনি ক্রিকেটের উন্নয়নে যে কর্মসূচি শুরু করেছিলেন বর্তমানে তার সুফল পাচ্ছে ক্রিকেট দল।

২৬ জানুয়ারী রবিবার বিশিষ্ট ক্রীড়া সংগঠক আরাফাত রহমান কোকো’র ৫ম মৃত্যু বার্ষিকী উপলক্ষ্যে শিবগঞ্জ উপজেলা বিএনপির উদ্যোগে মহাস্থান মাজার মসজিদে তার স্মৃতিচারণ তুলে ধরে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন।

তিনি কোকোর আকষ্মিক মৃত্যু উল্লেখ করে আরও বলেন, ২০১৫ সালের ২৪ জানুয়ারী দেশের গণআন্দোলনের এক শ্বাসরুদ্ধকর সময়ে বেগম খালেদা জিয়া গুলশানের নিজ কার্যালয়ে পুলিশী অবরুদ্ধ থাকা অবস্থায় মালয়েশিয়ায় আকষ্মিক মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন আরাফাত রহমান কোকো। তার অকাল মৃত্যুতে দেশব্যাপী শোকের মুহ্যমান হয়ে পড়েছিলেন।

তৎকালীন ১/১১ সরকারের সময়ে বেগম খালেদা জিয়ার সাথে গ্রেফতারের পর রিমান্ডে নিয়ে শারীরিক ও মানসিকভাবে প্রচন্ড নির্যাতন করে তাকে পুঙ্গু করা হয়। নির্যাতনের ফলে কোকোর হৃদযন্ত্রের সমস্যা দেখা দেয়। দোয়া মাহফিলে বেগম খালেদা জিয়া, তারেক রহমানের আশু রোগমুক্তি সুস্বাস্থ্য কামনা এবং জিয়াউর রহমান ও আরাফাত রহমান কোকোর রুহের মাগফেরাত কামনা করে দোয়া ও মুনাজাত করা হয়।

মহাস্থান মসজিদের সহকারী পেশ ইমাম মাওঃ মোঃ আব্দুল হামিদের পরিচালনায়, দোয়া ও মিলাদ করেন, পেশ ইমাম আলহাজ্ব মাওলানা মোঃ মামুনুর রশিদ মামুন। এসময় উপস্থিত ছিলেন, বগুড়া জেলা ছাত্রদলের সহ-সভাপতি হারুনুর রশিদ হীরণ, ছাত্রদলের যুগ্ন আহবায়ক রনি মিয়া, বিপ্লব হোসেন, রাসেল মাহমুদ, কাওছার আলী, রকি মিয়া, সাকিল রহমান,

জেলা ছাত্রদলের যুগ্ন সাধারন সম্পাদক মোশারফ হোসেন, আরিফুল ইসলাম, থানা যুবদল নেতা শাকিল আহম্মেদ, রব্বানী, উজ্জল হোসেন, শিপন মিয়া, রায়হান আলী, জাহাঙ্গীর হোসেন, জেলা ছাত্রদলের সাগর আহম্মেদ, রায়নগর ইউনিয়নের সবুজ মিয়া, মোকসেদুল, আঃ রাজ্জাক, লালমিয়া, শহিদুল ইসলাম, মাষ্টার ইউসুফ কাজী, ফাইন ইসলাম,

আইফুল ইসলাম, শিবগঞ্জ সদর ইউপি সদস্য আনিছার রহমান, ইউপি সদস্য আনছার আলী, ইউপি সদস্য জালাল উদ্দিন, রিপন মিয়া, বিটু রহমান, আঃ মান্নান, রফিকুল ইসলাম, রমজান আলী, সালামত আলী, নেছার উদ্দীন, মিঠু মিয়া, রেজাউল করিম, কাদের হোসেন, সাজু ও জিল্লুর রহমান প্রমুখ।

No comments

Leave a Reply

1 × 3 =

সর্বশেষ সংবাদ