Menu

যৌন হয়রানি, বাল্যবিয়ে ও সাইবার বুলিং প্রতিরোধ করিনারীর জন্য নিরাপদ পরিসর নিশ্চিত করি’ শীর্ষক নলেজ ফেয়ার

সোনাতলা সংবাদ ডটকম (শিবগঞ্জ প্রতিনিধি): ০৩এপ্রিল ২০১৯ সোমবার ব্র্যাকের সামাজিক ক্ষমতায়ন কর্মসূচি (সিইপি)’র উদ্যোগে ‘মেয়েদের জন্য নিরাপদ নাগরিকত্ব (মেজনিন)’ প্রকল্পের আয়োজনে যৌন হয়রানি, বাল্যবিয়ে ও সাইবার বুলিং সম্পর্কে শিক্ষার্থীদের মধ্যে সচেতনতা এবং সংবেদনশীলতা তৈরি, তাদেরকে আত্মপ্রত্যয়ী করা এবং ঐক্যবদ্ধভাবে নিজেদের করণীয় নির্ধারণে দক্ষ করে তোলার মাধ্যমে শিক্ষার্থী, শিক্ষক, অভিভাবক, স্থানীয় কমিউনিটির উদ্যোগীব্যক্তি, জনপ্রতিনিধিদের সমন্বয়ে স্কুলভিত্তিক ‘নলেজ ফেয়ার’ অনুষ্ঠিত হয়। মালতিনগর উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সুলতানা রাজিয়া অনুষ্ঠান উদ্বোধন করেন। উদ্বোধনী বক্তব্যে তিনি বলেন, নারীর প্রতি সহিংসতা প্রতিরোধে সকলের মাঝে সচেতনতা তৈরি করতে হবে সেই সাথে শিক্ষকদের গূরুত্বপূর্ন ভূমিকা পালন করতে হবে। সচেতনতা মূলক বক্তব্য রাখেন উক্ত স্কুলের প্রধান শিক্ষক, সহকারী শিক্ষক, ব্র্যক কর্মকর্তা, এসএমসির সদস্যসহ আরো অনেকে। সোমবার বগুড়া জেলার মালতিনগর উচ্চ বিদ্যালয়ের চত্বরে সকাল ০২.০০টায় উক্ত ‘নলেজ ফেয়ার’ অনুষ্ঠিত হয়। যৌন হয়রানি, বাল্যবিয়ে, সাইবার বুলিং এবং নারী ও শিশুর প্রতি সহিংসতা প্রতিরোধের উপর গুরুত্ব দিয়ে ব্র্যাক এই ‘নলেজ ফেয়ার’ পরিচালনা করছে। উক্ত ‘নলেজ ফেয়ার’ অনুষ্ঠানে সভাপ্রধানের দায়িত্ব পালন করেন মালতিনগর উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক জনাব সুলতানা রাজিয়া । সঞ্চালনা করেন মাসুদ রানা জে এস এস ব্র্যাক সামাজিক ক্ষমতায়ন কর্মসূচি। সম্মানীত অতিথিবৃন্দের আসন গ্রহন ও শুভ উদ্বোধন ঘোষনার পর নলেজ ফেয়ার এর কার্যক্রম শুরু হয়। এরপর আলোচনা পর্ব অনুষ্ঠিত হয়। শুরুতে স্বাগত বক্তব্য রাখেন বাবলী সুরাইয় জেলা ব্র্যাক প্রতিনিধি মেজনিন কর্মসূচি সম্পর্কে আলোচনা করেন রিজিওনাল ম্যানেজার মো: জিল্লুর রহমান ব্র্যাক সামাজিক ক্ষমতায়ন কর্মসূচি,। আলোচনা পর্বে আলোচনা করেন শিক্ষক, যৌন হয়রানি নির্মূলকরন নেটওয়ার্কের সদস্য ও এসএমসি’র সদস্যগন । সম্মানীত অতিথিবৃন্দ শিক্ষার্থীদের মধ্যে জ্ঞান বৃদ্ধির লক্ষ্যে রচনা, চিত্রাংকনও কুইজ প্রতিযোগিতার শুভ সূচনা করেন এবং পরির্দশন করেন। পরে বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করা হয়। শেষে সকল অংশগ্রহণকারী দাঁড়িয়ে ‘যৌন হয়রানি ও বাল্যবিয়েকে না বলি’ শীর্ষক লাল কার্ড প্রদর্শন ও শপথবাক্য পাঠ করানো হয়। ‘নলেজ ফেয়ার’ অনুষ্ঠানে শিক্ষক, শিক্ষার্থী, অভিভাবক, স্থানীয় কমিউনিটির উদ্যোগী ব্যক্তি, জনপ্রতিনিধি, উপস্থিত ছিলেন। যৌন হয়রানি, বাল্যবিয়ে নারী, সাইবার বুলিং ও নারী-শিশুর প্রতি সহিংসতা প্রতিরোধে শিক্ষার্থীদের মধ্যে সচেতনতা ও সংবেদনশীলতা তৈরি এবং ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করা ও শিক্ষার্থী, শিক্ষক, অভিভাবক, স্থানীয় কমিউনিটির উদ্যোগী ব্যক্তি, জনপ্রতিনিধি, গণমাধ্যম প্রতিনিধি এবং আইন শৃংখলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যদের সম্পৃক্তকরণের লক্ষ্যে সমাজে সম্মিলিত উদ্যোগ গ্রহণ করা।

No comments

Leave a Reply

four × four =

সর্বশেষ সংবাদ