Menu

শিবগঞ্জের গোপিনাথপুরে রাতের আধারে ধান কেটে জমি দখলের চেষ্টা

সোনাতলা সংবাদ ডটকম (গোলাম রব্বানী শিপন, মহাস্থান বগুড়া): বগুড়ার শিবগঞ্জ উপজেলার গোপিনাথপুরে রাতের আধারে ধানমাড়া মেশিন দিয়ে ধান কেটে জমি দখলের চেষ্টার অভিযোগ পাওয়া গেছে। ঘটনাটি ঘটেছে মঙ্গলবার রাতে।

ভুক্তভোগী ও এলাকাসীর অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, গোপিনাথপুর গ্রামের মৃত ইউসুফ আলীর ৭ কন্যা ও ১টি পুত্র রয়েছে। ২ মেয়ে পিতার ওয়ারিশ কন্যা সূত্রে পাওয়া জমির পরিমাণ ২ একর ১৬ শতাংশ। পৈতিক সূত্রে তার ২ মেয়ে আছিয়া বিবি, আঙ্গুরা বিবি ও ভাই মোয়াজ্জেমের নিটক থেকে গত ১০/০১/১৯ইং তারিখে ৪৪৭ নং কবলা দলিলমূলে তাদের ভাগের ৮৪ শতক গোপিনাথপুর মৌজার সাবেক দাগ ৪৪ হাল দাগ ২০৬ জমি কবলা জমি ক্রয় করেন, একই এলাকার একরাম হোসেন, আব্দুর রহিম, আব্দুল হান্নান, আদম হোসেন, মানোয়ার হোসেন ও ফারুক হোসেন। তারা প্রত্যেকেই ১৪ শতক করে জমি ক্রয় করেন। সেই থেকে উক্ত জমি চাষাবাদ করে আসছে ক্রয়কৃত ব্যক্তিরা।

এদিকে ওয়ারিশ মূলে দাবি করে প্রভাব খাটিয়ে রাতের আধারে ধান কেটে জমি দখলের চেষ্টা করে আব্দুল খালেক (৫৮) পিতা মৃত লাল মাহমুদ মন্ডল, সাং চল্লিশছত্র, শফিকুল আলম, (৪০) পিতা মৃত- ইউসুফ আলী, মেহেদী হাসান (২২) পিতা শফিকুল আলম, সাং ধোপাকুর, মোকারম হোসেন (৪২) পিতা মমতাজ উদ্দিন সাং হরিপুর, মোছাঃ রাবেয়া বেগম (৫০) জং মৃত ছাত্তার আলী, সাং পূর্ব জাঙ্গীরাবাদ, হেলাতন বিবি (৩৮) জং ওসমান গনি সাং পূর্ব জাঙ্গীরাবাদ, নুরুন্নাহার খাতুন, (৪৫) জং শফিকুল আলম সাং ধোপাকুর, মর্জিনা খাতুন (৩৫) পিতা মৃত ইউসুফ আলী, রেশমিনারা (৩২) সাং গোপিনাথপুর জং শফিকুল আলম, সাং ধোপাকুর।

গত ৩মাস আগে উক্ত জমিতে কবলাদারেরা ইউক্যালিপটাস গাছ রোপন করলে সে গাছ গুলোও অভিযুক্ত প্রতিপক্ষরা জমি থেকে উপড়ে ফেলে দেয়। এ বিষয়ে তৎকালীন শিবগঞ্জ থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছিল। মামলাটি বর্তমানে চলমান রয়েছে। এই মামলার আসামীরা এই জমিতে কখনো প্রবেশ করবে না বলে কোর্টে একটি অঙ্গিকার নামাও দিয়েছে। তারপরেও প্রতিপক্ষরা ভূমিদস্যু শ্রেনির ব্যক্তিদের সঙ্গে নিয়ে দলবদ্ধ হয়ে ওই জমির কাঁচাধান আধুনিক মেশিনদ্বারা কেটে সাভার করে।

এ বিষয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শনকারী শিবগঞ্জ থানার এসআই খাইরুল ইসলামের সাথে কথা বললে, তিনি জানান, গত প্রায় ৩ মাস আগে কবলা জমি কে কেন্দ্র করে গোপিনাথপুর ইউক্যালিপটাস গাছ উপড়ানো হয়েছিল। জমি দখল নিয়ে দু’পক্ষের বিরোধ সৃষ্টি হয়। পরে কবলাদারেরা বাদী হয়ে গাছ উপড়ানোর মামলা করেন। মামলাটি কোর্টে কি অবস্থায় আছে এ বিষয়ে কিছু জানেন না বলে পুলিশের এই কর্মকর্তা জানান। এ ঘটনায় থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছিল।

No comments

Leave a Reply

fourteen − seven =

সর্বশেষ সংবাদ