Menu

শিবগঞ্জে দেবরের সাথে অবৈধ সম্পর্কে ৮ মাসের অন্তস্বত্বা ভাবীঃ স্বামী কর্তৃক স্ত্রীর বিরুদ্ধে অভিযোগ

শিবগঞ্জ (বগুড়া) প্রতিনিধিঃ বগুড়ার শিবগঞ্জে ধর্ষণ প্রবণতা বৃদ্ধি সংকীত অভিভাবক মহল। গত ১ মাসে ডজন খানিক ধর্ষণ মামলা দায়ের হয়েছে। ধর্ষণকারীরা আইনের ফাঁক-ফুকর দিয়ে জামিন নিয়ে বেরিয়ে এসে প্রকাশ্যে দাপদের সহিত চলাফেরা করায় জন সাধারণ এ ধরনের অপরাধের প্রতিকার পাচ্ছে না বলে অভিযোগ করেছেন। এর ফলে ধর্ষণ প্রবণতা বেড়েই চলছে। উপজেলার কিচক ইউনিয়নের মাটিয়ান উত্তরপাড়া গ্রামের মৃত জমশের আলী ছেলে কৃষক মোস্তফা আলী ঠান্ডা তাদের সন্তানদের কথা ভেবে উভয়ের চিরস্থায়ী জন্মনিয়ন্ত্রণ পদ্ধতি ভ্যাসেকটমি পদ্ধতি গ্রহণ করে। এই সুযোগে এলাকার লম্বপট মৃত: দেলোয়ার হোসেন এর ছেলে মোঃ সাইফুল ইসলাম (৪২) এর সাথে পরোকিয়া প্রেমের সম্পর্ক স্থাপন করে। এক পর্যায়ে তাকে মিথ্য প্রলোভন দিয়ে বিভিন্ন সময়ে তার স্ত্রীর সাথে দৈহিক সম্পর্ক স্থাপন করে এর একপর্যায়ে তার স্ত্রী মোছাঃ ছালমা বেগম ৮ মাসের অর্ন্তসত্ত¡া হয়ে পড়ে। তার স্বামী মোস্তফা আলী ঠান্ডা জানান, আমার ৪ সন্তান জন্ম গ্রহণ করে। ভবিষ্যতে আর সন্তান না নেওয়ার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে চিরস্থায়ী জন্মনিয়ন্ত্রণ পদ্ধতি ভ্যাসেকটমি পদ্ধতি গ্রহণ করি। কিন্তু একই গ্রামের সাইফুল ইসলাম বিভিন্ন প্রলোভন দিয়ে আমার স্ত্রীর সহিত অবৈধ সম্পর্ক গড়ে তুলে অপকর্মে লিপ্ত হয়। এর একপর্যায়ে আমার স্ত্রী অন্তসত্ত¡া হয়ে পড়ে। এলাকায় আমি কোনো সুবিচার না পেয়ে নিরুপায় হয়ে সোমবার থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করি। তিনি এঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সুদৃষ্টি কামনা করেছেন। এঘটনায় শিবগঞ্জ থানায় অফিসার ইনচার্জ সিরাজুল ইসলাম বলেন, থানায় একটি লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

No comments

Leave a Reply

sixteen + one =

সর্বশেষ সংবাদ