Menu

শিবগঞ্জে বিদ্যালয় খোলা রেখে পরীক্ষাঃ বিদ্যালয়ে তালা দিলেন ইউএনও

শিবগঞ্জ (বগুড়া) প্রতিনিধিঃ কোভিড-১৯ এর কারণে সারাদেশে সরকারি ভাবে সমস্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ করে দেওয়ার ঘোষনা প্রদান করেন। সরকারি নিময় নীতি উপেক্ষা করে বিদ্যালয় পরিচালনা করায় ভাম্যমান আদালতের মাধ্যমে এক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে তালা ঝুলিয়ে দিলেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার।

জানা যায়, কোভিড-১৯ এর কারণে সারাদেশের সরকারী বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষনা থাকা স্বত্বেও শিবগঞ্জ উপজেলা চন্ডিহারা বাজারে অবস্থিত আলোর মেলা কেজি স্কুল কর্তৃপক্ষরা সরকারি নিময় নীতি উপেক্ষা করে সকাল ৮ টা থেকে ১০ টা পর্যন্ত চুপি চুপি স্কুল পরিচালনা করে আসছেন।

বিষয়টি উপজেলা নির্বাহী অফিসার উম্মে কুলসুম সম্পা জানতে পেরে তিনি গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ৯টায় উক্ত বিদ্যালয়ে অভিযান চালান। ২ শতাধিক কোমলমতি শিশুদের নিয়ে বিদ্যালয়ের শ্রেণিকক্ষে কর্তৃপক্ষরা পরীক্ষা নিচ্ছেন। উপজেলা নির্বাহী অফিসার উম্মে কুলসুম সম্পা তাৎক্ষনিক প্রতিষ্ঠানের পরিচালক দুলালুর রহমানের নিকট থেকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করেন এবং বিদ্যালয়ে তালা ঝুলিয়ে দেন।

এব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী অফিসার বলেন, সরকারি বিধি নিষেধ উপক্ষে করে কোমল মতি শিশুদের জীবনের ঝুঁকি নিয়ে অবৈধ ভাবে বিদ্যালয় পরিচালনা করায় এবং স্বাস্থ্য বিধি না মেনে বিদ্যালয় পরিচালনা করায় ১০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে এবং বিদ্যালয়ে তালা ঝুলিয়ে দেওয়া হয়েছে।

তিনি বলেন, এই কোভিড-১৯ প্রাদুর্ভাব কমে আসলে সরকারি ঘোষণা দিলে বিদ্যালয় খুলতে পারবেন। পরে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোকামতলা এলাকার প্রতিভা মডেল কেজি স্কুল সহ আরো বেশ কয়েকটি স্কুলে অভিযান চালনা এবং তাদেরকে সতর্ক করে দেন।

No comments

Leave a Reply

17 + one =

সর্বশেষ সংবাদ