Menu

শিবগঞ্জে স্বামীর অত্যাচারে অতিষ্ঠ হয়ে গৃহবধূর আত্মহত্যার হুমকিঃ পুলিশ গিয়ে উদ্ধার

শিবগঞ্জ (বগুড়া) প্রতিনিধি ঃ বগুড়ার শিবগঞ্জের পল্লীতে স্বামীর অত্যাচারে অতিষ্ঠ হয়ে তিন সন্তানের জননী গৃহবধূ রিতা বেগম (৩২) সন্তান সহ আত্মহত্যার হুমকি দিয়েছে। শুক্রবার সন্ধ্যা সাতটায় দিকে গৃহবধূ রিতা বেগম শিবগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সিরাজুল ইসলামের সরকারি মােবাইল নম্বরে ফােন করে আত্মহত্যার এই হুমকি দেন। পরে পুলিশ গিয়ে তাকে বুঝিয়ে-শুনিয়ে উদ্ধার করে থানায় আনেন। রাতে তাকে খাদ্য সহায়তা ও আইনি ব্যবস্থা গ্রহণের আশ্বাস দিয়েছে আত্মহত্যার ঘটনা থেকে নিবৃত্ত করেছে। রাতেই এ বিষয়ে থানায় স্বামী, শ^শুর ও ননদের বিরুদ্ধে অভিযােগ দিয়েছে।
গতকাল শুক্রবার রাত আটটায় দিকে শিবগঞ্জ উপজেলার দেউলী ইউনিয়নের তালিবপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। রিতা বেগম ওই গ্রামের মােঃ শামীম প্রামানিকের স্ত্রী।
অভিযােগে জানা গেছে, ১৩ বছর আগে বগুড়া শহরের ঠনঠনিয়া এলাকার মােখলেছার রহমানের মেয়ে রিতা বেগমর সঙ্গে তালিবপুর গ্রামের নান্নু প্রামানিকের ছেলে শামীম প্রামানিকের (৪০) সঙ্গে বিয়ে হয়। দাম্পত্য জীবনে তাদের তিনটি সন্তান রয়েছে। এর আগে রিতা বেগম চার বছর বিদেশে ছিলেন। সেই সময় তার আয় রােজগার স্বামী ও শ^শুরকে দিয়েছে। ২০২০ সালে দেশে ফেরার পর থেকেই ছােট-খাটাে বিষয়ে আমাকে মারপিট করে অমানুষিক নির্যাতন চালানো হয়। সে সন্তানের মুখের দিকে চেয়ে সব নির্যাতন মেনে নিয়েছি।
কিন্তু গত শুক্রবার সন্ধ্যা ৭টায় আবারও মারধর ভয়ভীতি হুমকি দেওয়ায় থানায় অভিযােগ দায়ের করা হয়।
রিতা বেগম জানান, স্বামী ও শ^শুর-শাশুড়ির নির্যাতনে অতিষ্ঠ হয়ে শুক্রবার সন্ধ্যা ৭টায় বাধ্য হয়ে থানার ওসি সাহেবকে ফােন দিয়ে জানায় এই সমস্যা সমাধান না করলে আমি সন্তান নিয়ে আতহত্যা করব। পরে পুলিশ এসে আমাকে উদ্ধার করে।
শিবগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সিরাজুল ইসলাম জানান, নারী কণ্ঠে আত্মহত্যার হুমকি পেয়ে আমি নিজেও বিচলিত হয়ে পরি। পরে তাকে উদ্ধার করে থানায় আনা হয়। সেখানে বুঝিয়ে শুনিয়ে শাÍ করে খাদ্য সহায়তা দিয়ে এবং আইনগত সাহায্যের আশ^াস দিয়ে তাকে বাড়ি পাঠানাে হয়েছে।

No comments

Leave a Reply

13 − 10 =

সর্বশেষ সংবাদ