Menu

সারিয়াকান্দিতে পৌর এলাকায় জমি নিয়ে উত্তেজনাঃ থানায় অভিযোগ

Exif_JPEG_420

সোনাতলা সংবাদ ডটকম (সারিয়াকান্দী প্রতিনিধি): বগুড়ার সারিয়াকান্দি পৌর এলাকায় দোকানের মালা-মাল সরিয়ে জমি দখলের চেষ্টায় দু’পক্ষের মধ্যে উত্তেজনা বিরাজ করছে। স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, গত রবিবার সকাল ৮ টার দিকে পৌর সভার মেইন রোডে উত্তর পাশের্^ শ্রী সুনিল কুমার প্রামানিক এর দোকান ঘর মেরামতের কাজ শুরু করেন। সংবাদ পেয়ে হিন্দুকান্দি গ্রামের মৃত-দৌলত জামানের ছেলে মোস্তাফিজার রহমান তার দল-বল নিয়ে সুনিল কুমার প্রামানিকের ভাড়া দেওয়া সুবল, গোপাল, সাহার আলী দোকানের মালা-মাল সরিয়ে দিয়ে সেখানে ইট রাখেন। এই নিয়ে দু’পক্ষের মধ্যে ব্যাপক উত্তেজনা বিরাজ করে। সংবাদ পেয়ে সারিয়াকান্দি থানা পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। এই বিষয়ে সুনিল কুমার গণমাধ্যম কে জানান, কবলাকৃত সূত্রে মালিক মৃত-সুবোধ কুমার প্রাং এর উত্তরাধিকার সূত্রে আমি এই জমির প্রকৃত মালিক। সেখান থেকে ০৪ শতক জমি মোস্তাফিজার রহমানের নিকট তারই ভ্রাতা শ্রী পলান কুমার, সাব কবলা দলিল নং-১৩০০, তারিখ ২০/০৩/২০০২ ইং এর মাধ্যমে বিক্রয় করে দেয়। পরবর্তীতে সুনিল কুমার ও শ্রীমতি সন্ধ্যা রাণী, বাদী হয়ে বিজ্ঞ যুগ্ম জেলা জজ, ১ম আদালত বগুড়ায় তারই ভাই পলান কুমার ও মোস্তাফিজার রহমান কে বিবাদী করে উক্ত দলিল অবৈধ ঘোষণা এবং বাদীর পক্ষের উপর বেশ কিছু ঘোষণার প্রার্থনায় দেওয়ানি মোকাদ্দমা ২৫/২০০২ দায়ের করেন। গত ১৮/০৫/২০০৫ ইং তারিখে মামলা রায়ে সাব কবলা দলিল ১৩০০ অবৈধ ঘোষণা করেন তৎকালিন যুগ্ম জেলা জজ মো: আতিকুর রহমান। মামলার রায় পাওয়ার পর থেকেই বর্তমান জমির মালিক সুনিল কুমার প্রাং জমিতে দোকান ঘর নির্মাণ করে ভাড়া দিয়ে ভোগ দখল করে আসছেন। আদালতের নির্দেশ অমান্য করে রবিবার জমিটি দখল নেওয়ার চেষ্টা করেন মোস্তাফিজার রহমান । এবিষয়ে দখলকারী মোস্তাফিজার রহমানের সাথে কথা হলে তিনি গণমাধ্যম কে বলেন, শ্রী সুনিল কুমার প্রাং এর ভাই শ্রী পলান কুমার প্রামানিকের নিকট থেকে ১ লক্ষ টাকার মূল্যে ৪শতক জমি ক্রয় করেছি। উক্ত ৪ শতক জমি বুঝে নেওয়ার জন্য বার বার বলা হলেও সুনিল কুমার কোন গুরুত্ব দেয় না। আমি রবিবার সকালে জানতে পারলাম-সুনিল কুমার প্রাং ঘর মেরামতের কাজ শুরু করেছেন। তাই আমি ইট নিয়ে গিয়ে রেখেছি ক্রয়কৃত ৪ শতক জমিতে কাজ করার জন্য। তিনি আরো বলেন,দোকানের মালা-মাল লুটপাটের কোন ঘটনা ঘটেনি। সুনিল কুমার প্রাং আদালতে মামলা করেছিলো তা আমি জানি না। এক তরফা ভাবে রায় নেওয়া হয়েছে। এই ব্যাপারে সারিয়াকান্দি থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আল-আমিন বলেন-উভয় পক্ষ থেকে থানায় অভিযোগ করা হয়েছে। জমি-জমার বিরোধ আদালতের মাধ্যমে নিষ্পত্তি হবে। আইন-শৃঙ্খলা যাতে কোন ভাবেই অবনতি না ঘটে, তার জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

No comments

Leave a Reply

1 × 2 =

সর্বশেষ সংবাদ