Menu

সুখানপুকুরে ট্রেনে কাটা পড়ে ভিক্ষুকের মৃত্যুঃ ঝোলায় পাওয়া গেল ৮০ হাজার টাকা!

সোনাতলা সংবাদ ডটকম (সুখানপুকুর প্রতিনিধি): বগুড়ার সোনাতলা উপজেলার সীমান্তবর্তী গাবতলী উপজেলার সুখানপুকুর রেল স্টেশনে ট্রেনে কাটা খোকা মোল্লা নামের এক ভিক্ষুকের ঝোলা থেকে পাওয়া গেছে নগদ ৮০ হাজার ১৯০টাকা। সে গাবতলী উপজেলার নেপালতলী ইউনিয়নের ধনঞ্জয় গ্রামের মৃত মুনি মোল্লার ছেলে।
স্থানীয় লোকজন জানিয়েছে, ওই ভিক্ষুক প্রায় ২৫ বছর ধরে ভিক্ষাবৃত্তি করে আসছিলেন। এবং তার ভিক্ষাবৃত্তির টাকাগুলো ঝোলাতে রেখে বহন করে বেড়াতেন।
প্রতক্ষদর্শীরা জানান, আজ বুধবার সকাল ৯টার দিকে গাইবান্ধার বোনারপাড়া থেকে বগুড়ার সান্তাহারগামী কলেজ ট্রেনটি সুখানপুকুর রেল স্টেশনে থামলে ওই ভিক্ষুক ট্রেনে ওঠে। এরপর ট্রেন ছাড়লে ওই ভিক্ষুকের হাতে থাকা ঝোলাটি নিচে পড়ে যায়। এসময় ভিক্ষুক খোকা মোল্লা ট্রেন থেকে নামার চেষ্টা করলে সে ট্রেন থেকে পড়ে যায় এবং চাকায় পৃষ্ট হয়ে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়। এসময় স্থানীয় এলাকার লোকজন ভিক্ষুকের লাশের পাশ্বে একটি ঝোলা দেখতে পায়। ওই ঝোলায় প্রচুর পরিমান টাকা দেখে ষ্টেশন মাষ্টারের নিকট জমা দেন এলাকার লোকজন।
গাবতলী উপজেলার সোনারায় ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ড ইউপি সদস্য আবুল কালাম আজাদ বাদল বলেন, খুচরা ও নোট টাকা ছিল। যা গনণা করতে প্রায় ৩ঘন্টা সময় লেগেছে। ভিক্ষুকের ঝোলায় ৮০হাজার ১৯০ টাকা ছিল বলে জানান তিনি।
সুখানপুকুর রেল স্টেশন মাষ্টার আব্দুল মতিন অনলাইন পত্রিকা সোনাতরা সংবাদ ডটকমকে বলেন, ভিক্ষুকের ঝোলা থেকে পাওয়া টাকাগুলো চেয়ারম্যান মেম্বারদের উপস্থিতিতে ভিক্ষুকের পরিবারকে দেওয়া হয়েছে।

No comments

Leave a Reply

three × 1 =

সর্বশেষ সংবাদ