Menu

সোনাতলার তেকানী চুকাইনগর ইউনিয়নে নৌকার কান্ডারী হতে চান তাহের

বদিউদ-জ্জামান মুকুল, সোনাতলা (বগুড়া) প্রতিনিধিঃ আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনকে সামনে রেখে বগুড়ার সোনাতলা উপজেলার তেকানী চুকাইনগর ইউনিয়নে সম্ভাব্য প্রার্থী তালিকায় ভোটারদের মুখে মুখে ৬ জন প্রার্থীর নাম শোনা যাচ্ছে। তবে সম্ভাব্য প্রার্থীদের মধ্যে জনপ্রিয়তায় শীর্ষে রয়েছেন ছালেক সোলার পাওয়ার লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) ছালেক উদ্দিনের বড় ভাই মোঃ আবু তাহের।
সম্ভাব্য প্রার্থীরা হচ্ছেন, মোঃ আবু তাহের, জাহিদুল ইসলাম, গিয়াস উদ্দিন বেপারী, এনামুল হক মন্ডল, আশরাফ উদ্দিন মাষ্টার, শামছুল হক মন্ডল। ইতিমধ্যেই সম্ভাব্য প্রার্থীরা এলাকায় লিপলেট, পোস্টার, ব্যানার, ফেসটুন টানিয়ে দিয়ে ভোটারদের নতুন মুখ খুঁজছে। সেক্ষেত্রে ভোটারদের মুখে মুখে আবু তাহেরের নাম উঠে এসেছে। তিনি ভিকনেরপাড়া এলাকার আলহাজ্ব মোফাজ্জল হোসেন বেপারী ও জাহানারা বেগমের সুযোগ্য পুত্র।
যমুনা নদীর তীরবর্তী ইউনিয়ন তেকানীচুকাইনগর। ওই ইউনিয়নের বেশিরভাগ মানুষ চরাঞ্চলে বসবাস করেন। ওই ইউনিয়নের প্রায় ৮৫ ভাগ মানুষ সরাসরি কৃষি কাজের সাথে জড়িত। প্রকৃতির সাথে লড়াই সংগ্রাম করে টিকে থাকাই তাদের যেন দৈনন্দিন চ্যালেঞ্জ। বিগত দিনে স্থানীয় নির্বাচনে বিজয়ী জনপ্রতিনিধিরা শুধু সরকারী অনুদান ছাড়া এলাকার অসহায় দরিদ্র মানুষের পাশে গিয়ে কেউ কখনও এক মুহুর্তের জন্য দাঁড়ায়নি বলে ভোটারদের অভিযোগ রয়েছে। তবে সেক্ষেত্রে ব্যতিক্রম ধর্মী আবু তাহের। তিনি নন কোন জনপ্রতিনিধি তারপরও তার সাহায্য সহযোগিতার হাত কখনও থেমে নেই। নেই দিন-রাত মানুষের বিপদের কথা শুনলেই ছুড়ে গিয়ে পাশে দাঁড়ায় আবু তাহের।
এ বিষয়ে ছালেক সোলার পাওয়ার লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) মোঃ ছালেক উদ্দিন জানান, ভোট দেওয়ার দায়িত্ব ভোটারদের আর এলাকার উন্নয়ন করার দায়িত্ব আমার।
এ বিষয়ে আবু তাহেরের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের সভানেত্রী ও গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা তাকে মনোনয়ন দিলে তিনি বিপুল ভোটে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হবেন।

No comments

Leave a Reply

7 − three =

সর্বশেষ সংবাদ