Menu

সোনাতলায় আওয়ামীলীগের অফিস ভাঙচুরের অভিযোগে থানায় মামলা দায়ের

সোনাতলা সংবাদ ডটকম (লতিফুল ইসলাম, সোনাতলা): সোনাতলার জোড়গাছা ইউনিয়নের হাটকরমজায় ৭ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ অফিস ভাঙচুরের ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় সোনাতলা থানায় মামলা দায়ের করেছেন জোড়গাছা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুল মোমেন।

গত ১২ মার্চ দায়েরকৃত মামলায় তিনি উল্লেখ করেছেন, গত ১১ মার্চ রাত ৮ টায় কতিপয় আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মী হাটকরমজা ৭ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ দলীয় কার্যালয়ে বসে নির্বাচনী আলাপ আলোচনা করছিলো।

এ সময় হাট করমজা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠ থেকে নির্বাচনী সভা থেকে বিএনপির দলীয় সমর্থকগণ ফেরার পথে সোনাতলা উপজেলার পূর্ব করমজা গ্রামের তারা মিয়ার ছেলে মোঃ হামিদুল ইসলাম লিটু (৩৬) এর নেতৃত্বে ৮১ বিএনপি নেতা-কর্মীসহ আরো অজ্ঞাত শতাধীক লোকজন বেআইনী জনতায় দলবদ্ধ হয়ে হাতে লাঠিশোটা, ইট পাটকেলসহ এসে ককটেল বিস্ফোরণ ঘটায়, দলীয় অফিস ভাঙচুর করে।

এ সময় আসামী সাচ্চু, হামিদুল ইসলাম জলিল, সুলতান হাবিব অফিসে টাঙ্গানো প্রধানমন্ত্রীর ছবি দেয়াল থেকে খুলে ছুড়ে ফেলে এবং ভাঙ্চুর করে। আসামী ঝন্টু, শহিদ, মোশারফ, বুলু, আব্দুল লতিফ, হান্নান, স্বপন, সোহেল আকন্দ, হিরা আকন্দ, জিয়াউল হক লিপন, চপল দেয়ালে থাকা জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর ছবি এবং মুজিব বর্ষ উপলক্ষে দলীয় অফিসে ঝুলানো আরো ২০/২৫ টি ছবি পুড়িয়ে ফেলে।

অন্যান্য আসামীরা লাঠি দিয়ে এলাপাথাড়িভাবে মারপিট করতে থাকে। তখন আওয়ামী লীগের দলীয় লোকজন প্রাণভয়ে অফিসের পিছন দরজা দিয়ে পালিয়ে যায়। এ ঘটনায় জোড়গাছা দক্ষিণ শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদকসহ প্রায় ১০ থেকে ১২ জন সদস্য আহত ও জখমপ্রাপ্ত হয়। এছাড়াও প্রায় ৫০ হাজার টাকার ক্ষতিসাধন হয়।

এ ব্যাপারে মামলাটির তদন্তকারী অফিসার এসআই আব্দুল জাব্বার আলী জানান, এ ঘটনায় মামলা হয়েছে। মামলাটি তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

No comments

Leave a Reply

5 × 4 =

সর্বশেষ সংবাদ