Menu

সোনাতলায় জমি-জমা নিয়ে দু’পক্ষের মধ্যে টানটান উত্তেজনাঃ সংঘর্ষের আশংকা

সোনাতলা সংবাদ ডটকম (স্টাফ রিপোর্টার): বগুড়ার সোনাতলা উপজেলার পল্লীতে জমি-জমা নিয়ে দু’পক্ষের মধ্যে টানটান উত্তেজনা বিরাজ করছে। এ নিয়ে যেকোন সময় রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের আশংকা করা হচ্ছে।

এলাকাবাসী ও থানা সূত্রে জানা গেছে, বগুড়ার সোনাতলা উপজেলার পাকুল্লা ইউনিয়নে সাতবেকী গ্রামের মেহেদুল ইসলামের ছেলে ও দুবাই প্রবাসী মিজানুর রহমান সোহাগের সাথে একই গ্রামের মৃত মোহাম্মদ জামান সরকারের ছেলে মাহফুজার রহমান, মাহবুর রহমান ও মাজেদুর রহমান মিঠুর সাথে বাড়ির পার্শ্ববর্তী সাতবেকী মৌজার একটি জমি নিয়ে দীর্ঘদিন যাবত বিরোধ চলে আসছে।

ওই জমি নিয়ে কয়েক দফা গ্রাম্য ও থানায় বৈঠক করেও কোন ফল হয়নি। এর এক পর্যায়ে গতকাল রোববার মোহাম্মদ জামান সরকারের ছেলে মাহবুবুর রহমান ও তাদের লোকজন বিরোধপূর্ণ ওই জমিতে পাওয়ার টিলার দিয়ে জমি চাষের চেষ্টা চালায়।

এ সময় প্রতিপক্ষের মেহেরুল ইসলাম ও তার লোকজন বিরোধপূর্ণ জমিতে চাষ করতে নিষেধ করে। এ নিয়ে উভয় পক্ষের মধ্যে টানটান উত্তেজনার সৃষ্টি হয়। খবর পেয়ে থানা পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

এ বিষয়ে দুবাই প্রবাসী মিজানুর রহমান সোহাগের বাবা মেহেদুল ইসলামের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, সাতবেকী মৌজার ৪১৫নং দাগে মোট ৮৮ শতক জমি রয়েছে। ওই জমির একটি অংশ তাদের। তাদের পূর্ব পুরুষেরা জমিটি তাদের নামে হেফা দলিল করে দেয়।

এরপর ওই জমিটি আবারও অন্যের নিকট বিক্রি করে। সেই বিরোধপূর্ণ জমি প্রতিপক্ষের লোকজন গতকাল রোববার বেলা আনুমানিক ১০টায় দখল করতে আসে।

এ বিষয়ে মাহবুর রহমানের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, ওই জমিটি তাদের পৈত্রিক সম্পত্তি। প্রতিপক্ষের লোকজন নিজেদের দাবি করে জমি চাষে বাঁধা দেয়। এছাড়াও তিনি আরও জানান, দীর্ঘদিন যাবত ওই জমিটি তারা ভোগ দখল করে আসছে।

এ ঘটনার পর সোনাতলা থানা পুলিশ ঘটনাস্থল এসে উত্তেজিত পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। ফলে নিশ্চিত সংঘর্ষের হাত থেকে উভয়পক্ষ রক্ষা পায়।

এ বিষয়ে সোনাতলা থানার ওসি মোঃ রেজাউল করিম রেজার সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, এ বিষয়ে থানায় অভিযোগ করা হয়েছে। বিষয়টি তাদের গোচরে রয়েছে।

গতকাল একটি পক্ষ ওই জমি চাষ করতে গেলে আরেকটি পক্ষ বাধা দেয়। ফলে ওই এলাকায় টানটান উত্তেজনা বিরাজ করছিল।

পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এছাড়াও তিনি আরও জানান, উভয়পক্ষকে কাগজপত্র সহ থানায় আসতে বলা হয়েছে

No comments

Leave a Reply

15 − 9 =

সর্বশেষ সংবাদ