Menu

সোনাতলায় জোরপূর্বক জায়গা দখল করে বাড়ি নির্মাণের অভিযোগ

সোনাতলা (বগুড়া) প্রতিনিধিঃ সোনাতলা উপজেলার মধুপুর ইউনিয়নের মধুপুর গ্রামে জায়গা দখল করে জোরপূর্বক বাড়ি নির্মাণের অভিযোগ উঠেছে। সোনাতলা উপজেলা সদরে এসে সাংবাদিকদের এ অভিযোগ করেন মধুপুর গ্রামের মৃত নজির শেখের ছেলে মোঃ ফেরদৌস শেখ।
তিনি জানান, উপজেলার মধুপুর মৌজায় পৈত্রিক সূত্রে কবলাকৃত ৫৬৮২ খতিয়ানে ৭৭৪ দাগে ৫২ শতক জায়গায় তার মা, ভাই পরিবারসহ অন্যান্য ৪ চাচা ও চাচাতো ভাইদের পরিবার নিয়ে বসবাস করে আসছেন। প্রায় ৫০/৫৫ বছর আগে হঠাৎ করে দখলী ৫২ শতক জায়গার মধ্যে ৩৮ শতক জায়গায় টিনের ঘর তোলে মধুপুর গ্রামের মোসলেম উদ্দীন প্রধান ও তার ছেলেরা। অশিক্ষিত ও গরীব হওয়ায় ওই সময় ফেরদৌস শেখের বাবা বা চাচারা জীবিকার প্রয়োজনে সোনাতলার বাইরে অবস্থান করছিলেন।
এ ঘটনায় ২০১২ সালে জেলা বগুড়ার নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ‘খ’ অঞ্চল আদালতে মোস্তাফিজার রহমান প্রধান গংদের বিবাদী করে মামলা করেন মৃত নজির শেখের পুত্র মোঃ ফেরদৌস শেখ। মামলাটির শুনানী চলমান আছে। মামলা থাকা অবস্থায় সে ২ মাস আগে রাতের আধারে টিন দিয়ে ঘিরে জোড়পূর্বক ইট দিয়ে বাড়ি নির্মাণ কাজ শুরু করে মোস্তাফিজার রহমান গংদের লোকজন। এখনো এ নির্মাণ কাজ চলমান আছে।
এ ব্যাপারে সোনাতলা থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে ।
ভুক্তভোগী ফেরদৌস শেখ এ ব্যাপারে যথাযথ কর্তৃপক্ষের সুদৃষ্টি কামনা করেন।
সোনাতলা থানার অফিসার ইনচার্জ রেজাউল করিম রেজার সাথে কথা বললে তিনি জানান, বিষয়টি আমার জানা নেই। তবে কোন কর্মকর্তার নিকট অভিযোগ থেকে থাকে তাহলে সে অনুযায়ী প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

No comments

Leave a Reply

9 − five =

সর্বশেষ সংবাদ