Menu

সোনাতলায় নকশা পরিবর্তনে জমির ভোগদখল নিয়ে দ্বন্দ্বঃ থানায় অভিযোগ

সোনাতলা সংবাদদাতাঃ বগুড়ার সোনাতলা উপজেলা মধুপুর ইউনিয়নে মধুপুর গ্রামে রাস্তার পার্শ্বে ভোগ দখলীয় জমির ভাগ বাটোয়ারা নিয়ে হিন্দুপরিবার ও মুসলিম পরিবারের মধ্যে দ্ব›েদ্বর সৃষ্টি হয়েছে। এ ব্যাপারে হিন্দু পরিবারের পক্ষে নিখিল চন্দ্র বর্মণ বাদীয় হয়ে থানায় অভিযোগ দায়ের করেছে।

জানা যায়, মধুপুর গ্রামের মৃত মহেষ চন্দ্র বর্মনের ছেলে নিখিল ও তার ভাইয়েরা এবং একই গ্রামের মৃত জসিম উদ্দিন মন্ডলের ছেলে আমজাদ হোসেনের ক্রয়কৃত রাস্তার পার্শ্বের জমি ভোগদখল করে আসছে। ভোগদখলের দীর্ঘদিন পর ওই জমির নকশা পরিবর্তন হয়ে পূর্ব পশ্চিম বরাবর আমজাদ হোসেনকে উত্তর পার্শ্বে এবং নিখিল গংদের দক্ষিণ পার্শ্বে ভিন্ন ভিন্ন দাগে দখল দেখানো হয়েছে।
অভিযোগ সুত্রে জানা যায়, মধুপুর মৌজার জেএল নং ৩১, খতিয়ান ৯১৭, হালে ১৬৬ নং দাগে ৪১ শতাংশ জমি নিখিল ও তার ভাইয়েরা বাড়িঘর নির্মাণ সহ ভোগদখল করে আসছে নিখিল গং। ওই জমি আমজাদ হোসেন ও তার লোকজন হাতে লাঠি সোডা নিয়ে গত ২৫ মার্চ সকাল সাড়ে ১০টায় দখল করতে আসে। বাধা দিলে নিখিল তার ভাই ও নিকটতম আত্মীয় স্বজনদের মারপিট করে বিভিন্ন প্রকার ভয়ভীতি দেখায়। মারপিটে আহতরা সোনাতলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সে চিকিৎসা নিয়েছে। প্রতিপক্ষের দাবান-শাসানে ভীত হয়ে নিখিল প্রতিপক্ষের আমজাদ হোসেন, ভাই আঙ্গুর মন্ডল, আনোয়ার হোসেনসহ ১১ জনের নাম উল্লেখ করে ১৫/২০জনকে অজ্ঞাত রেখে থানায় অভিযোগ দায়ের করে। এ বিষয়ে সোনাতলা থানার অফিসার ইনচার্জ রেজাউল করিম রেজা অভিযোগের বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে এবং উভয় পক্ষকে আইনশৃঙ্খলা বজায় রাখতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। এ বিষয়ে বাংলাদেশ মাইনোরিটি ওয়াচ বগুড়া জেলা প্রতিনিধি বিকাশ স্বর্ণকার জানান, নিখিলের প্রতিপক্ষরা পেশি শক্তি ব্যবহার করে হিন্দু পরিবারের জমি জোরপূূর্বক দখলের চেস্টা করছে। হিন্দু পরিবারগুলো যেনো শান্তিতে বসবাস করতে পারে, এ ব্যপারে প্রশাসনের সুদৃষ্টি কামনা করেছেন।

No comments

Leave a Reply

twenty − 4 =

সর্বশেষ সংবাদ