Menu

সোনাতলায় পাওয়ার ট্রেলার দিয়ে জমি চাষ করা নিয়ে দুই পরিবারের মধ‍্যে হাতাহাতি

সোনাতলা (বগুড়া) প্রতিনিধিঃ বগুড়ার সোনাতলা পাওয়ার ট্রেলার দিয়ে জমি চাষ করা নিয়ে দুই পরিবারের মধ‍্যে হাতাহাতির ঘটনা ঘটেছে। ঘটনাটি ঘটেছে ২ জুলাই বৃহস্পতিবার পৌর এলাকার কানুপুর গ্রামে।

সরে জমিনে গিয়ে জানা যায়, পৌর এলাকার কানুপুর গ্রামের মৃত কছিম শেখের ছেলে হাবিজার রহমান শেখের সাথে একই এলাকার শামছুল মন্ডলের ছেলের সিজুল মন্ডলের সাথে জমিতে হাল চাষ করাকে কেন্দ্র করে এঘটনা ঘটে।

এ বিষয়ে হাবিজার শেখ জানান, তার হাল চাষ করা পাওয়ার ট্রেলার ছিল তা দিয়ে তিনি ওই এলাকার ১৫/২০ বিঘা জমি হাল চাষ করতো। অর্থনৈতিক সমস‍্যার কারনে তিনি পাওয়ার ট্রেলারটি বিক্রি করেন। যার কারনে তার নিয়মিত হালচাষ করা জমির মালিকরা তার কাছ থেকেই চাষ করে নেবে বলে জানান।

এদিকে হাবিজারের পাওয়ার ট্রেলার না থাকার কারনে তার শ‍্যালক একই এলাকার ছালজার রহমানের ছেলে আশরাফুলকে ওই জমিগুলো চাষ করে দিতে বলে। তার কথা মতে শ‍্যালক আশরাফুল জমি চাষ করা শুরু করে। প্রতিপক্ষ আরেক পাওয়ার ট্রেলার মালিক সিজুল ইসলাম জমিচাষ করা অবস্থায় আশরাফুলের পাওয়ার ট্রেলারের হ‍্যান্ডেল নিয়ে বাড়িতে চলে যায়।

বিষয়টি আশরাফুল তার দুলাভাই হাবিজারকে অবগত করে। হাবিজার সিজুলকে হ‍্যান্ডেল কেড়ে নেওয়ার কথা বলতে গেলে তার সাথে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে হাতাহাতির ঘটনা ঘটে।

এঘটনায় হাবিজারের স্ত্রী ও মেয়ে এগিয়ে গেলে উভয় পরিবারের মধ‍্যে হাতাহাতির ঘটনা ঘটে।

এব‍্যাপারে প্রতিপক্ষ সিজুলের সাথে মোবাইল ফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করলে তাকে পাওয়া যায়নি।

এবিষয়ে স্থানীয় জনপ্রতিনিধি কাউন্সিলর আব্দুল হক বাবুর সাথে কথা বললে তিনি জানান, পরস্পর সামান‍্য বিষয় নিয়ে উভয়ের মধ‍্যে হাতাহাতির ঘটনা ঘটেছে মাত্র। উভয়পক্ষই তাকে মৌখিক ভাবে অভিযোগ করেছে। বিষয়টি নিয়ে আগামী শনিবার স্থানীয় ভাবে বসে মিমাংসা করে দেওয়া হবে।

No comments

Leave a Reply

seventeen − sixteen =

সর্বশেষ সংবাদ