Menu

সোনাতলায় বসতবাড়ির জায়গা-জমি নিয়ে সংঘর্ষঃ আহত ১০, আটক ৪

সোনাতলা সংবাদ ডটকম (স্টাফ রিপোর্টার): বগুড়ার সোনাতলা উপজেলার মধুপুর ইউনিয়নের ছাতিয়ানতলা গ্রামে বসতবাড়ির জায়গা-জমি নিয়ে বিরোধের জের ধরে দু’পক্ষের মধ্যে মারপিটের ঘটনায় উভয়পক্ষের কমপক্ষে ১০জন আহত হয়েছে।

আহতদেরকে স্থানীয় ও বগুড়া শজিমেক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আহতদের মধ্যে ৪ জনের অবস্থা আংশকাজনক। এ ঘটনায় পুলিশ ৪ জনকে আটক করেছে।

স্থানীয় লোকজন ও থানা সূত্রে জানা গেছে, গত সোমবার বেলা আনুমানিক ৩টার সময় বগুড়ার সোনাতলা উপজেলার মধুপুর ইউনিয়নের ছাতিয়ানতলা গ্রামে মকবুল হোসেন ও আব্দুল কাফি গংদের মধ্যে বসতবাড়ির জায়গা জমি মাপযোগের কাজ চলছিল।

এ সময় উভয়পক্ষের নারীদের মধ্যে প্রথমে কথা কাটাকাটি থেকে সংঘর্ষে রুপ নেয়। পরে মারপিটের ঘটনা মহিলা থেকে পুরুষদের মধ্যে বিস্তার লাভ করে। এক পর্যায়ে উভয়পক্ষের মধ্যে হাতাহাতি থেকে লাঠি দিয়ে মারপিট শুরু হয়।

এতে করে মকবুল হোসেন গ্রুপের আব্দুল মজিদ (৩০), বালিকা বেগম (৫৫), বুলু বেপারী (৪৫), নাজমুল হক (১৫), হাসেন আলী (৫৫) এবং নূরনবী গ্রুপের নূরনবী (৪৫), সোনা মিয়া (৪০), জিল্লুর রহমান (৩০), আনিছুর রহমান (৩৫), আইবর (৫৫), আতিকুল ইসলাম (২২), মাসুদ (২৮) গুরুতর আহত হয়। পরে স্থানীয় লোকজন তাদের উদ্ধার করে সোনাতলা হাসপাতালে ভর্তি করায়।

সেখানে আহতদের মধ্যে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আব্দুল মজিদ, বালিকা বেগম, জিল্লুর রহমান ও নূরনবীর অবস্থার অবনতি হলে তাদেরকে বগুড়া শজিমেক হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়।

এ ঘটনার পর উভয়পক্ষের মধ্যে টানটান উত্তেজনা বিরাজ করছে। যেকোন সময় এ নিয়ে আবারও রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের আশংকা রয়েছে।

 মঙ্গলবার বিকাল ৪টায় এ রিপোর্ট লেখা অবধি থানায় কোন মামলা হয়নি। তবে মামলা দায়েরের প্রস্তুুতি চলছিল।

পুলিশ এ ঘটনার সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে ছাতিয়ানতলা গ্রামের রইছ উদ্দিনের ছেলে তাহেরুল ইসলাম, আফতাব বেপারীর ছেলে আতিকুল ইসলাম, মফিজ বেপারীর ছেলে আব্দুল আলিম ও কফিল উদ্দিন বেপারীর ছেলে আব্দুল মালেককে আটক করেছে।

এ বিষয়ে সোনাতলা থানার ওসি রেজাউল করিম রেজার সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, এ ঘটনার পর পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা করা হবে।

No comments

Leave a Reply

eight − 1 =

সর্বশেষ সংবাদ