Menu

সোনাতলায় বাকি টাকা চাওয়ায় দোকানীর শরীরে গরম পানি দিল বিদ্যালয়ের ক্যারানী!

সোনাতলা (বগুড়া) প্রতিনিধিঃ বগুড়ার সোনাতলায় দোকানের বাকির টাকা চাইতে গেলে বিদ্যালয়ের কেরানী কর্তৃক তাহেরুল ইসলাম নামের এক মুদি দোকানদারের শরীরে ফ্লাক্সের গরম পানি নিক্ষেপের ঘটনা ঘটে। এঘটনায় তাহেরুল গুরুতর আহত অবস্থায় সোনাতলা উপজেলা সাস্থ কমপ্লেক্সে চিকিৎস্যাধীন রয়েছেন।
জানাযায়, উপজেলার মধুপুর ইউনিয়নের ফুলবাড়ি গ্রামের মৃত নুরুল ইসলাম বেপারীর ছেলে মোঃ তাহেরুল ইসলাম ফুলবাড়ি চারমাথায় একটি মুদী খানার দোকান দিয়ে দির্ঘদিন যাবত ব্যবস্যা করে আসছে। গত ১৫দিন পুর্বে একই এলাকার মোঃ আফছার প্রামানিকের ছেলে ও শালিখা উচ্চ বিদ্যালযের কেরানী মোঃ ফরহাদ হোসেন তাহেরুলের দোকান থেকে পান ও সিগারেট বাকিতে ক্রয় করে। এদিকে ২০’শে মার্চ শনিবার বিকেলে ফরহাদ ঐ দোনের সামন দিয়ে যাওয়ার সময় তাহেরুল তাকে ডাকদিয়ে তার নিকট থেকে পাওনা টাকা চায়। এতেকরে ফরহাদ দোকানদার তাহেরুলের উপর ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠে। এসময় উভয়ের মধ্যে কথাকাটাকাটি শুরু হলে একপর‌্যায়ে ফরহাদ তাহেরুলকে মারধর শুরু করে এবং দোকানে থাকা ফ্লাক্সের গরম চায়ের পানি তার শরীরে নিক্ষেপ করে। এতেকরে তার শরীরের কিছু অংশ ও দুই পা ঝলসে যায়। এরপর তার পরিবারের লোকজন স্থানীয় লোকজনের সহযোগিতায় তাহেরুলকে সোনাতলা হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করে। বর্তমানে তিনি চিকিৎস্যাধীন রয়েছেন। স্বরজমিনে গেলে এলাকার লোকজন বলেন তাহেরুল বাকির টাকা চাওয়ায় এঘটনা ঘটে। অপরদিকে বিদ্যালযের কেরানী ফরহাদ হোসেনের সাথে কথা বললে তিনিও ঘটনার সত্যতা স্বিকার করেন।

No comments

Leave a Reply

fourteen − 5 =

সর্বশেষ সংবাদ