Menu

সোনাতলায় ভূয়া ডিবি পুলিশ সন্দেহে যুবক আটকঃ রাতে মুচলেকায় মুক্তি 

আব্দুর রাজ্জাক, সোনাতলাঃ বগুড়ার সোনাতলা উপজেলার জোড়গাছা ইউনিয়নের হাট করমজা থেকে জাহিদ হোসেন জয় নামে এক ভূয়া ডিবি পুলিশকে আটক করে থানা পুলিশ। জয় গাবতলী উপজেলার জাতহলিদা গ্রামের রেজানুল হক শামীমের ছেলে।

 

এলাকাবাসী সুত্রে জানা যায় ২৪জুন বৃহস্পতিবার দুপুরে হাটকরমজা জয় বেড়াতে আসে। সেখানে হাট করমজা এলাকার তবিবর রহমানের ছেলে বিপুল ও আব্দুর রাজ্জাক তাকে চিনতে পেরে জিজ্ঞাসা করে। প্রায় তিন মাস পূর্বে সে ওই এলাকায় একজন অটো চালকে ডিবির ভয় দেখিয়ে তার কাছ থেকে ৩০ হাজার টাকা নিয়ে সটকে পরে।

 

পরে তার পরিচয় জানতে পেরে বাসায় গিয়ে পরিবারের লোকজনকে এ বিষয়ে অবগত করে। পরিবার বলে তাদের ছেলে নাকি মাদকাশক্ত। তার সাথে কোন সম্পর্ক নাই। হতাসা হয়ে ফেরত আসে তারা। তারপর থেকে নজরে রাখে ভুক্তভোগী, বিপুল ও রাজ্জাক।

 

এরই এক পর্যায়ে ২৪ জুন ভূয়া ডিবি পরিচয়কারী জয় ওই এলাকায় আসে। তাকে চিনতে পারে এক পর্যায়ে বিপুল ও রাজ্জাকসহ এলাকাবাসী জয়কে অবরুদ্ধ করে। স্থানীয়রা পুলিশকে খবর দেয়।

 

খবর পেয়ে সোনাতলা থানার এসআই আব্দুর রহিম ঘটনাস্থলে পৌছে জয়কে দড়ি দিয়ে বেধে আটক করে থানায় নিয়ে আসে। এবং ভুক্তভোগীদের থানায় এসে অভিযোগ দিতে বলে।

 

ভুক্তভোগী বিপুল ও রাজ্জাক অভিযোগ দিতে না চাইলে রাতেই থানা পুলিশ মুছলেখায় জয়কে তার পরিবারের হাতে তুলে দেন।

 

এব‍্যাপারে সোনাতলা থানা অফিসার ইনচার্জ রেজাউল করিম রেজা বলেন, পুলিশকে সহযোগীতা করে বিপুল ও রাজ্জাকে ধরিয়ে দেওয়াকে কেন্দ্র করে বিরোধ ছিলো। আর তাই জয় শ্বশুর বাড়িতে বেড়াতে এলে জয়কে তারা অবরুদ্ধ করে রাখে । খবর পেয়ে পুলিশ তাকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে। ভূয়া ডিবির সত‍্যায়িত না পাওয়ায় এবং তার বিরুদ্ধে অভিযোগ না পাওয়ায় তাকে পরিবারের হাতে মূছলেকায় ছেড়ে দেওয়া হয়।

No comments

Leave a Reply

nine + fifteen =

সর্বশেষ সংবাদ