Menu

সোনাতলায় স্ত্রীর দেওয়া লিভার প্রতিস্থাপনের মাধ্যমে নতুন জীবন পেলেন স্বামী বুলবুল

সোনাতলা সংবাদ ডটকম (বদিউদ-জ্জামান মুকুল, সোনাতলা): বগুড়ার সোনাতলাউপজেলায় স্ত্রীর দেওয়া লিভার পরিবর্তনের মাধ্যমে নতুন জীবন ফিরে পেলেন স্বামী বুলবুল। স্বামী বুলবুলের লিভার সম্পূর্ণ অকেজো হয়ে যখন মৃত্যুর ষয্যায় তখন স্বামীকে আজীবন পাশে রাখতে নিজের জীবনের ঝুঁকি নেয় নুপুর। স্ত্রী নুপুর বেগম স্বামী বুলবুলকে তার লিভার দিতে রাজী হওয়ায় ভারতের এপোলো হাসপাতালের চিকিৎসকরা স্ত্রীর লিভার স্থাপন করেন স্বামীর শরীরে। বর্তমান নিয়ে সুস্থ হয়ে দেশে ফিরে এসেছেন ওই দম্পত্তি।

জানাগছে, বগুড়ার সোনাতলা উপজেলার দিগদাইড় ইউনিয়নের মাদারীপাড়া গ্রামের মৃত ইয়াছিন আলী তরফদারের ছেলে জামিলুর রহমান বুলবুলের সাথে একই উপজেলার কাতলাহার গ্রামের সাবেক ইউপি সদস্য আব্দুল মজিদের মেয়ে ও রংপুর বিএডিসি’র উপসহকারী পরিচালক মাকছুদা জাহান নুপুরের। বিয়ে বছর খানেক পরে তাদের ঘরে জন্ম নেয় জাইমা রহমান ইলা (১১)। এর বছর দু’য়েক পরে তাদের প্রথম সন্তান নাবিল রহমান নূরের জন্ম হয়। তাদের স্বামী-স্ত্রীর দাম্পত্য জীবন সুখের কাটছিল। এরই মধ্যে এক কঠিন ব্যাধিতে আক্রান্ত হয় স্মামী জামিলুর রহমান বুলবুল। কয়েকবার

পার্শ্ববর্তী দেশ ভারতের চেন্নাই এপোলো হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে যান তিনি। চিকিৎসক তাকে দ্রুত লিভার পরিবর্তনের পরামর্শ দেন।
স্বামী বুলবুলকে আজীবন পাশে রাখতে নিজের লিভার স্বামীর শরীরে প্রতিস্থাপনের সিদ্ধান্ত নেয় ওই গৃহবধু নুপুর।

স্মামী বুলবুল ও স্ত্রী নুপুর বলেন, হয় ১ মাস পূর্বে প্রায় ৫১ লাখ টাকা ব্যয়ে ভারতের চেন্নাই এপোলো হাসপাতালে লিভার প্রতিস্থাপন করা হয়। এই লিভার প্রতিস্থাপন করতে প্রায় ১৮ ঘন্টা সময় লেগেছে। আজ শুক্রবার চিকিৎসা শেষে বগুড়ার সোনাতলার দিগদাইড় ইউনিয়নের মহিচরণ এলাকায় ফিরে এসেছেন তারা দু’জন।

No comments

Leave a Reply

4 × four =

সর্বশেষ সংবাদ