Menu

সোনাতলায় স্বামী কর্তৃক দুই সন্তানের জননীকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ

সোনাতলা সংবাদ ডটকম (নিজস্ব প্রতিবেদক): ঢাকার আব্দুল্লাহপুর মাদারবাড়ীতে বসবাসকারী সোনাতলা উপজেলার ইতি বেগমকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। ইতি সোনাতলা উপজেলার সুজাইতপুর গ্রামের শিপন মিয়ার স্ত্রী। সোনাতলা থানায় করা জিডিসূত্রে জানা গেছে, দুই সন্তানের জননী ইতি তার স্বামী শিপন মিয়ার সাথে আব্দুল্লাহপুর মাদারবাড়ীতে ভাড়া বাসায় বসবাস করে আসছিল। তারা উভয়েই একটি গার্মেন্টস ফ্যাক্টরীতে কর্মরত ছিল। শনিবার ইতির সাথে তার স্বামীর ঝগড়া হয়। শনিবার সন্ধ্যায় ইতিকে মারপিট করে মুমূর্ষু অবস্থায় উত্তরা আধুনিক মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যায় স্বামী শিপন মিয়া। এসময় কর্তব্যরত ডাক্তার ইতিকে মৃত ঘোষণা করে। তড়িঘড়ি করে শিপন ঢাকা থেকে লাশটি নিয়ে সোনাতলায় সুজাইতপুর গ্রামে তার নিজ বাড়ীতে রেখে পালিয়ে যায়। পরে সোনাতলা থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশটি থানায় নিয়ে যায় এবং পরে পোস্ট মর্টেমের জন্য মর্গে প্রেরণ করে।মৃত ইতির মা সাঘাটা উপজেলার জুমারবাড়ী ইউনিয়নের মামুদপুর গ্রামের জাহানার বেগম। তিনি জানান, আমার মেয়ের গলায়, বাম ঘাড়সহ শরীরের বিভিন্ন জায়গায় আঘাতের চিহ্ন রয়েছে।
অতিরিক্ত পুলিশ সুপার তাপস কুমার পাল ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।
সোনাতলা থানার এসআই জহুরুল জানান,আমরা লামটি মর্গে পাঠিয়েছে। রিপোর্ট এলে সে অনুযায়ী পদক্ষেপ গ্রহন করা হবে।

No comments

Leave a Reply

2 × four =

সর্বশেষ সংবাদ