Menu

সোনাতলায় ৯ মামলাসহ পর্নোগ্রাফি মামলার মূল আসামী ঠান্ডু গ্রেফতার

সোনাতলা প্রতিনিধিঃ বগুড়ার সোনাতলায় বিভিন্ন ৯ টি মামলাসহ পর্নোগ্রাফি মামলার মূল আসামী মনিরুজ্জামান @ঠান্ডুকে গ্রেফতার করে আদালতে প্রেরণ করেছে থানা পুলিশ।

 

ঠান্ডু উপজেলার বালুয়া ইউনিয়নের ছোটবালুয়া (কারিগর পাড়া) গ্রামের আবুল কাশেম এর ছেলে।

 

মামলা সুত্রে জানা যায়, মামলার বাদী এক নারীর ব্যবহিত মোবাইল ফোনে ওই ঠান্ডু অশ্লীল এসএমএস প্রদান সহ হুমকি দিতে থাকে।

 

গত ২৫ মে-২১ উক্ত ঠান্ডুসহ অজ্ঞাত ৩/৪ জন মোটর সাইকেল যোগে ওইদিন বিকালে বাদীর বাড়ী উপজেলা বালুয়া ইউনিয়নের নগরপাড়া গ্রামে বাড়ির সামনে লাল রং এর ০১ টি টিস্যু ব্যাগ ফেলিয়া চলিয়া যায়। ব্যাগের মধ্যে কয়েকটি কাগজে বিভিন্ন প্রকার লেখা-লেখি এবং ০২ টি এসডি কার্ড পায় ওই নারী।

 

উক্ত এসডি কার্ড মোবাইল ফোনের মাধ্যমে চালু করে দেখতে পায় বিভিন্ন সময়ে গোপনে মোবাইল ফোনের মাধ‍্যমে ধারণকৃত অপ্রীতিকর ভিডিও ও অন‍্যের ছবির একাংশের সাথে ছবি এডিট করে অপর পুরুষের ছবি সংযুক্ত করেছে।

 

আসামী মনিরুজ্জামান ঠান্ড সহ অজ্ঞাতনামা কয়েকজন মিলে পর্নোগ্রাফী, অপ্রীতিকর ভিডিও এবং ছবি ধারন ও এডিট এবং প্রচার করে বাদী ওই নারীকে সামাজিকভাবে হেয় প্রতিপণ্য করায়।

 

ভুক্তভোগী ওই নারী বাদী হয়ে ঠান্ডুকে মূল আসামীসহ ৪/৫ জনকে অজ্ঞাত আসামী করে ২৫ জুন ২০১২ সালের নিয়ন্ত্রণ আইনে পর্নোগ্রাফি মামলা দায়ের করেন।

 

থানা পুলিশ পর্নোগ্রাফী মামলার মূল আসামী মনিরুজ্জামান @ঠান্ডুকে গ্রেফতার করে। ২৭জুন রবিবার সকালে ঠান্ডুকে আদালতে প্রেরণ করে।

 

থানা সুত্রে জানা যায়, আসামী মনিরুজ্জামান @ঠান্ড এর বিরুদ্ধে নাশকতা, চাঁদাবাজি, নারী নির্যাতন, ডাকাতি, বিস্ফোরক, মাদক মামলাসহ মোট ০৯ টি মামলা বিচারাধীন রয়েছে।

No comments

Leave a Reply

5 × 2 =

সর্বশেষ সংবাদ