Menu

সোনাতলা রেল কর্মকর্তা কর্তৃক বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে কটুক্তি করায় সান্তাহার রেল পুলিশের তদন্ত

সোনাতলা প্রতিনিধিঃ বগুড়ার সোনাতলা রেল স্টেশন মাস্টার রবিউল ইসলামের বিরুদ্ধে মোবাইলে কথোপকথনে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও তার কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে নিয়ে কটুক্তি করার অভিযোগে সান্তাহার রেল ওয়ে থানা পুলিশের তদন্ত।

 

৭জুন মঙ্গলবার বিকালে সান্তাহার রেলওয়ে থানা অফিসার ইনচার্জ

 

মনজের আলী ও বগুড়া রেলওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির এসআই মোস্তফা সোনাতলা ষ্টেশনে এসে পয়েন্টসম্যান সুশীল দাসসহ সংশ্লিষ্ঠ কর্মকর্তা কর্মচারিদের জিজ্ঞাবাদ করেন।

 

জানা যায় গত ১৭ মে বাংলাদেশ রেলওয়ে লালমনিরহাট ডিভিশন কন্ট্রোল অফিস থেকে স্টেশন মাস্টার রবিউল ইসলামকে টিকেট কাউন্টারের উপরে লাগানো জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ছবি তুলে পাঠাতে বলা হয়। রবিউল ইসলাম স্টেশনে না থাকায় মোবাইলে পয়েন্টসম্যান সুশিল কুমার দাশকে ওই ছবিটি তুলে পাঠাতে বলেন।

 

এসব কথাবার্তা সুশিলের মোবাইলে রেকর্ড হয়ে যায়। ৪মে একই স্টেশনের সুশীল দাশ নামে এক পয়েন্টসম্যান কথোপকথনের অডিও ক্লিপ পয়েন্টসম্যান সুশীল দাসের ফেইসবুক পেজে ছাড়ার পর তা ব্যাপকভাবে ভাইরাল হলে রেলকর্তৃপক্ষ রবিউল ইসলামকে ঠাকুরগাঁওয়ের পীরগঞ্জ স্টেশনে বদলি করে।

 

রেকর্ডটিতে স্টেশন মাষ্টার রবিউলকে বলতে শোনা যায়, ‘কন্ট্রোলের সোহাগ ফোন দিয়ে কছে বঙ্গবন্ধুর ছবি তুলে ইমেইলে পাঠাতে। ভিতরের তো দুজনেই।

 

শেখ হাসিনা প্লাস ওর স্বামী না কি যেন হয়। “ওর বাপ। তালে শুনে নিব বাপ-বেটির ছবি দিমু নাকি একজনের। তাহলে ওরা বাপবেটি, তাই না, আমিতো স্বমি-বউ বানাইছি। হিন্দু মানুষের নাম মনে থাকে না’

 

এ বিষয়ে রেলওয়ের লালমনিরহাট জোনের ডিভিশনাল ম্যানেজার রেল (ডিআরএম) শাহ সূফী নুর মোহাম্মদ বলেন, বিষয়টি তিনি মৌখিকভাবে শুনেছেন, অডিও ক্লিপ শোনেন নি। তবে প্রাথমিক শাস্তি হিসেবে তাকে ঠাকুরগাঁওয়ের পীরগঞ্জে বদলি করা হয়েছে। এ বিষয়ে একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। কমিটির প্রতিবেদন অনুযায়ী তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

 

এবিষয়ে রেলওয়ে সান্তাহার থানা অফিসার ইনচার্জ মনজের আলী,বলেন যেহেতু এবিষয়ে কোন অভিযোগ পাওয়া যায়নি, অভিযোগ পাওয়া সাপেক্ষে আইনগত ব‍্যাবস্থা গ্রহন করা হবে।

No comments

Leave a Reply

19 + 20 =

সর্বশেষ সংবাদ